শনিবার | ২৮ মে, ২০২২
পার্বত্য চট্টগ্রাম শান্তি চুক্তি স্বাক্ষরের ২৪ বছর পূর্তি উপলক্ষ্যে বুধবার এক বাণীতে

পার্বত্য জেলাগুলোর উন্নয়ন কর্মকান্ডে আন্তরিকতার সাথে দায়িত্ব পালন করার আহবান রাষ্ট্রপতির

প্রকাশঃ ০২ ডিসেম্বর, ২০২১ ১২:০১:২৮ | আপডেটঃ ২৭ মে, ২০২২ ০৭:০৪:৩৪  |  ৭৬৭

সিএইচটি টুডে ডট কম ডেস্ক। রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদ পার্বত্য জেলাসমূহের উন্নয়ন কর্মকান্ডকে টেকসই বেগবান করতে সংশ্লিষ্ট সকলকে আরো নিষ্ঠা আন্তরিকতার সাথে দায়িত্ব পালনের আহ্বান জানিয়েছেন আগামীকাল ডিসেম্বর পার্বত্য চট্টগ্রাম শান্তি চুক্তি স্বাক্ষরের ২৪ বছর পূর্তি উপলক্ষ্যে বুধবার এক বাণীতে তিনি আহবান জানান


রাষ্ট্রপতি পার্বত্য চট্টগ্রাম শান্তি চুক্তি স্বাক্ষরের ২৪ বছর পূর্তি উপলক্ষ্যে পার্বত্য এলাকার সকল অধিবাসীকে আন্তরিক শুভেচ্ছা অভিনন্দন জানান। তিনি বলেন, বাংলাদেশের তিন পার্বত্য জেলা রাঙ্গামাটি, বান্দরবান এবং খাগড়াছড়ি নৈসর্গিক সৌন্দর্যের অপার আধার। যুগযুগ ধরে পাহাড়ে বসবাসরত বিভিন্ন জনগোষ্ঠীর বর্ণিল জীবনাচার, ভাষা, কৃষ্টি সংস্কৃতি অঞ্চলকে বিশেষভাবে বৈশিষ্ট্যমন্ডিত করেছে


পার্বত্য জেলাগুলোর আর্থসামাজিক উন্নয়ন অঞ্চলে শান্তি প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে ১৯৯৭ সালের ডিসেম্বর সরকারের পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক জাতীয় কমিটি পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির মধ্যে এক ঐতিহাসিক চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। এর ফলে পার্বত্য জেলাসমূহে দীর্ঘদিনের সংঘাতের অবসান ঘটে। সূচিত হয় শান্তির পথচলা। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উদ্যোগ শান্তিপূর্ণভাবে বিরোধ নিষ্পত্তির ক্ষেত্রে একটি অনুসরণীয় দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে


রাষ্ট্রপতি বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রাম প্রাকৃতিক সম্পদে সমৃদ্ধ উন্নয়নের ক্ষেত্রে অত্যন্ত সম্ভাবনাময় অঞ্চল। শান্তি চুক্তি বাস্তবায়নের ধারাবাহিকতায় গঠিত হয়েছে পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয় এবং পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদ। শান্তি চুক্তির ফলে পার্বত্য চট্টগ্রাম অঞ্চলের আর্থসামাজিক, অবকাঠামো সাংস্কৃতিক উন্নয়ন ত্বরান্বিত হচ্ছে। তিনি বলেন, ‘পার্বত্য এলাকার উন্নয়ন অগ্রগতিতে পার্বত্য চট্টগ্রাম শান্তি চুক্তি ইতিবাচক ভূমিকা রাখবে- প্রত্যাশা করি।'

 

জাতীয় |  আরও খবর
এইমাত্র পাওয়া
আর্কাইভ
সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত, ২০১৭-২০১৮।    Design & developed by: Ribeng IT Solutions