মঙ্গলবার | ০৭ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩
দূর্গম এলাকায়

গর্ভবতী মায়েদের প্রাতিষ্ঠানিক ডেলিভারী নিশ্চিতে বান্দরবানে কর্মশালা

প্রকাশঃ ২৮ নভেম্বর, ২০২২ ০৬:০৪:২৫ | আপডেটঃ ০৫ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩ ১১:২০:১২  |  ২০৪
সিএইচটি টুডে ডট কম, বান্দরবান। বান্দরবান পার্বত্য জেলার দূর্গম এলাকায় গর্ভবতী মায়েদের প্রাতিষ্ঠানিক ডেলিভারী নিশ্চিতকরণের লক্ষ্যে এক কর্মশালা বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদের হলরুমে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সোমবার (২৮ নভেম্বর) কর্মশালাটি বান্দরবান জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ এবং পরিবার পরিকল্পনা বিভাগ এর যৌথ আয়োজনে এবং USAID  & MaMoni Maternal and Newborn Care  Strengthening Project, Save The Children এর সহযোগীতায় অনুষ্ঠিত হয়।  
কর্মশালায় সভাপতিত্ব করেন বান্দরবানের সিভিল সার্জন ডা: নীহার রঞ্জন নন্দী। এসময় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ক্য শৈ হ্লা।

এসময় অন্যান্যদের মাঝে আরো উপস্থিত ছিলেন  বান্দরবান জেলা প্রশাসনের স্থানীয় সরকারের উপ-পরিচালক মো: লুৎফুর রহমান, বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদের মূর্খ্য নির্বাহী কর্মকর্তা এটিএম কাউছার হোসেন, সেভ দ্যা চিলড্রেন এলজিএ ও মামনি এমএসসিএস প্রকল্পের টেকনিক্যাল এডভাইজার ডা: যতন ভৌমিক, পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের উপ-পরিচালক ডা: অংচালু, হেলেন কেলার ইন্টারন্যশনাল এর টেকনিক্যাল এডভাইজার ডা: অং সাজাই, থানচি উপজেলার ইউএইচএফপিও জেলা প্রকল্প সমন্বয়ক আলু মং,আলীকদম উপজেলার ইউএইচএফপিও এসএসএস প্রকল্পের ডা: ওয়াহিদুজ্জামান, ডা: মাহাতাব উদ্দিন চৌধুরী, বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্য ক্যসাপ্রু, সদস্য ধুংড়ি মং মারমা, মামনি এমএনসিএসপি: প্রকল্পের সিনিয়র টেকনিক্যাল এডভাইজার-পিআই নাজমুল কবির ।

এসময় বক্তারা বান্দরবান পার্বত্য জেলার দূর্গম এলাকায় মায়েদের প্রাতিষ্ঠানিক ডেলিভারি নিশ্চিত করার লক্ষ্যে রেফোরেল মেকানিজম শুরু করার জন্য আলোচনা করে। এসময় বক্তারা বলেন, সরকার এর স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রালয়ের সহায়ক প্রকল্প হিসেবে ইউএসএআইডি এর অর্থায়নে সেভ দ্য চিলড্রেন  বান্দরবান জেলার স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের সাথে সমন্বয়ের মাধ্যমে বিগত দেড় বছর ধরে মামনি এমএনসিএস প্রকল্প বাস্তবায়ন করে আসছে। তারই ধারাবাহিকতায় বান্দরবান জেলার রুমা, আলীকদম এবং থানচি উপজেলার দুর্গম এলাকায় মাতৃমুত্যু ও নবজাতকের মত্যু হার কমানোর লক্ষ্যে গর্ভবতী মায়েদের প্রাতিষ্টানিক ডেলিভারী নিশ্চিত করতে রেফারেল সেবার কাজ  শুরু করতে হবে।

এসময় বক্তারা আরো বলেন, সরকারের স্বাস্থ্য বিভাগের পাশাপাশি বেসরকারী উন্নয়ন সংস্থার বিভিন্ন কর্মকান্ডের ফলে পার্বত্য জেলা বান্দরবানে প্রাতিষ্টানিক ডেলিভারী আগের চেয়ে বৃদ্ধি পেয়েছে এবং মাতৃমত্যুর হার অনেকাংশে কমে এসেছে।

বান্দরবান |  আরও খবর
এইমাত্র পাওয়া
আর্কাইভ
সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত, ২০১৭-২০১৮।    Design & developed by: Ribeng IT Solutions