মঙ্গলবার | ২৯ নভেম্বর, ২০২২

বান্দরবানে সর্বোচ্চ পর্বতশৃঙ্গ নির্ধারণে জরিপ

প্রকাশঃ ২৪ নভেম্বর, ২০২২ ০৪:০৮:৫৭ | আপডেটঃ ২৯ নভেম্বর, ২০২২ ১২:৩৬:৪০  |  ৮৪
কৌশিক দাশ, সিএইচটি টুডে ডট কম, বান্দরবান।  দেশের সর্বোচ্চ পর্বতশৃঙ্গ কোনটি,তা নতুন করে নির্ধারণের জন্য কাজ শুরু হচ্ছে। শুক্রবার (২৫ নভেম্বর) জরিপ অধিদপ্তরের ৩৫জনের একটি দল বান্দরবানে গিয়ে দেশের সর্বোচ্চ পর্বতশৃঙ্গ নির্ধারণে কাজ শুরু করবে।

সুত্রে জানা যায় , জরিপ দলের সদস্যরা ৪০ দিন ধরে বান্দরবান জেলার রুমা ও থানচি উপজেলার পাহাড়গুলো পরিমাপ করে সর্বোচ্চ পাহাড়ের শীর্ষবিন্দু নির্ণয় করবেন। দেশের সর্বোচ্চ পর্বতশৃঙ্গ বান্দরবানের তাজিংডং নাকি সাকা হাফং জরিপের মধ্য দিয়ে সেই বিতর্কও নিরসন হবে বলে আশা সংশ্লিষ্টদের।
আরো জানা যায়, বান্দরবানের দুর্গম রুমা উপজেলায় অবস্থিত কেওক্রাডংকে একসময় দেশের সর্বোচ্চ পাহাড় হিসেবে ধরা হতো, বর্তমানে তাজিংডং পাহাড়কে সর্বোচ্চ বলা হচ্ছে। তবে পাহাড়ে গহীনে যারা ভ্রমণ করেন তাদের অনেকেই দীর্ঘদিন ধরে দাবি করে আসছে তাজিংডং নয়, সাকা হাফং বা মদক তং দেশের সবচেয়ে উঁচু পর্বতশৃঙ্গ। এই বিতর্ক নিরসনের জন্য জরিপ অধিদপ্তর থেকে দেশের সর্বোচ্চ পর্বতশৃঙ্গ নির্ণয়ের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।
সুত্রে আরো জানা জানা যায়, বাংলাদেশের সর্বোচ বিন্দু বা পর্বতশৃঙ্গ নির্ধারণ ও সরকারিভাবে পর্বতের উচ্চতা পরিমাপের জন্য ২০২২ সালের ১৭ মে বান্দরবানের জেলা প্রশাসক ইয়াছমিন পারভীন তিবরীজি বাংলাদেশ জরিপ অধিদপ্তরের সার্ভেয়ার জেনারেল অব বাংলাদেশ এর কাছে একটি পত্র প্রেরণ করে। আর ওই পত্রে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ বিন্দু বা পর্বতশৃঙ্গ নির্ধারণ ও অন্যান্য পর্বতগুলোকে সরকারিভাবে পরিমাপ করে গেজেট প্রণয়নের জন্য অনুরোধ জানানো হয়। পত্রের প্রেক্ষিতে সম্মতি প্রকাশ করে সম্প্রতি জরিপ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক (জরিপ) দেবাশীষ সরকার  বান্দরবানের জেলা প্রশাসককে একটি পত্র প্রেরণ করেন এবং বান্দরবানে এসে থানচি  ও রুমা এলাকার পাহাড়সহ দুর্গম এলাকায় অবস্থিত পাহাড় গুলো পরিমাপের কথা জানান।

ওই পত্রে জরিপ দলের সদস্যরা  প্রিসিশন টোটাল স্টেশন, আরটিকে-জিপিএস, স্ট্যাটিক জিপিএস, হ্যান্ড হেল্ড জিপিএস, আরটিকে রেডিও লিংক লেভেল মেশিনসহ উন্নত প্রযুক্তির মাধ্যমে পাহাড় এর গড় উচ্চতা নির্ণয় করবেন বলে জানান।

জরিপ অধিদপ্তরের উপ-সহকারী তত্তবধায়ক এরশাদুল হক মন্ডল এই দলের নেতৃত্ব দেবেন আর জরিপ দলটি  বান্দরবানের থানচি ও রুমা উপজেলায় ৪০দিন ধরে বিভিন্ন পাহাড়ের উচ্চতা পরিমাপ করবেন বলে জানান জেলা প্রশাসনের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) সুরাইয়া আক্তার সুইটি। তিনি আরো জানান, শুক্রবার (২৫ নভেম্বর) জরিপ অধিদপ্তরের ৩৫জনের একটি দল বান্দরবানে এসে দেশের সর্বোচ্চ পর্বতশৃঙ্গ নির্ধারণে কাজ শুরু করবে।


বান্দরবান |  আরও খবর
এইমাত্র পাওয়া
আর্কাইভ
সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত, ২০১৭-২০১৮।    Design & developed by: Ribeng IT Solutions