মঙ্গলবার | ০৭ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩
কাউখালীতে আওয়ামীলীগের যৌথ প্রতিনিধি সভা  :হাজী মোঃ মুছা মাতব্বর

বিএনপি জামায়াত যাতে মাথা তুলে দাঁড়াতে না পারে সে জন্য সজাগ থাকতে হবে

প্রকাশঃ ২৭ নভেম্বর, ২০২২ ০৮:১০:৪২ | আপডেটঃ ০৬ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩ ১১:৩৯:১০  |  ১৭৫

সিএইচটি টুডে ডট কম,, রাঙামাটি। আগামী সংসদ নির্বাচনে পাহাড়ের শান্তি বিনষ্টকারী বিএনপি জামায়াত যাতে মাথা তুলে দাঁড়াতে না পারে সে জন্য সজাগ থাকতে হবে। সকল বিভেদ ভুলে সকল নেতাকর্মীদেরকে ঐক্যবদ্ধ থাকার আহবান জানিয়েছেন রাঙামাটি জেলা  আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক হাজী মোঃ মুছা মাতব্বর।

তিনি আরো বলেন, ঘাপটি মেরে থাকা                                                                 বিএনপি জামায়াত যাতে মাথা চাড়া দিয়ে উঠে স্বাধীনতা রক্ষাকারী সংগঠনের উপর ঝাঁপিয়ে পড়তে না  পারে তার জন্য সকাল                                                                                                                                                                           নেতা কর্মীদেরকে সজাগ থাকবে হবে।


গতকাল শনিবার বিকেলে উপজেলা পরিষদ অডিটরিয়ামে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ কাউখালী উপজেলা শাখা ও সহযোগী সংগঠনের যৌথ প্রতিনিধি সভায় তিনি একথা বলেন।


রাঙামাটি জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও কাউখালী উপজেলা আওয়ামীলীগের  সভাপতি অংসুইপ্রু চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় কাউখালী উপজেলা আওয়ামীলীগেরসহ-সভাপতি ক্যাজাই মারমা, সহ-সভাপতি ও কাউখালী উপজেলা চেয়ারম্যান শামসুদ্দোহা চৌধুরী, সহ-সভাপতি মোঃ বেলাল উদ্দিন, সহ-সভাপতি প্রফেসর সুইবাই রোয়াজা, সাধারণ সম্পাদক মোঃ এরশাদ সরকার, যুগ্ম সম্পাদক হাবিবুর রহমান হাবিব, সাংগঠনিক সম্পাদক অংক্যজ চৌধুরী,বেতবুনিয়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি মনির উদ্দিন,আওয়ামীলীগ নেতা মাইন উদ্দিন খোকা, যুবলীগ সভাপতি অভিমং চৌধুরী,সাধারন সম্পাদক নাজিম উদ্দিন বক্তব্য রাখেন।


সভাপতির বক্তব্যে রাঙামাটি জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও কাউখালী উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি অংসুই প্রু চৌধুরী বলেন , ১৯৯৭সালের ২ডিসেম্বর পার্বত্য চট্টগ্রাম চুক্তির সম্পাদন করে পাহাড়ের শান্তি ফিরিয়ে আনা হয়েছিলো।কিন্তু বিএনপি জামায়াত পার্বত্য চুক্তিকে কালোচুক্তি বলে আখ্যায়িত করে পাহাড়ের কালো পতাকা উত্তোলন করেছে। পার্বত্য অঞ্চলকে ভারত হয়ে যাবে বলে জনগনকে বিভ্রান্ত করেছে। চুক্তির ফলে পার্বত্য অঞ্চল ভারত হয়নি পার্বত্য অঞ্চল আজ উন্নয়নের ছোয়ায় বিশ্বের কাছে একটি প্রাকৃতিক সৌন্দর্য্যের রানী হিসাবে পরিচিতি লাভ করেছে।


তিনি আরো বলেন, পার্বত্য অঞ্চল আজ দেশের অর্থনীতিতে ভূমিকা রাখছে।পাহাড়ের পর্যটন শিল্পের বিকাশে বর্তমান সরকার কাজ করে যাচ্ছে বলেও মন্তব্য করেন।

রাঙামাটি |  আরও খবর
এইমাত্র পাওয়া
আর্কাইভ
সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত, ২০১৭-২০১৮।    Design & developed by: Ribeng IT Solutions