মঙ্গলবার | ২৯ নভেম্বর, ২০২২
বর্ণিল আনন্দ আয়োজনে

রাঙামাটি প্রেসক্লাবের ৪৪তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত

প্রকাশঃ ২৩ নভেম্বর, ২০২২ ০৪:৪৫:০৩ | আপডেটঃ ২৯ নভেম্বর, ২০২২ ১০:১০:০৭  |  ১২৯
সিএইচটি টুডে ডট কম, রাঙামাটি। বর্ণিল আনন্দ আয়োজন ও নানা কর্মসূচীর মধ্যদিয়ে রাঙ্গামাটি প্রেসক্লাবের ৪৪তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত হয়েছে। সকালে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে শ্রদ্ধা নিবেদনের মধ্যদিয়ে প্রতিষ্ঠাবাষির্কী আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়। পরে সকাল ১১টায় রাঙামাটি প্রেসক্লাব মিলনায়তনে আলোচনা সভা ও কেক কেটে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন করা হয়।

রাঙামাটি প্রেসক্লাবের সভাপতি সাখাওয়াৎ হোসেন রুবেলের সভপতিত্বে প্রতিষ্ঠবার্ষিকীর আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, রাঙামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার। এসময় রাঙামাটি জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মিজানুর রহমান, পুলিশ সুপার মীর আবু তৌহিদ, বিপিএম (বার) রাঙামাটি পুলিশ সুপার মীর আবু তৌহিদ, বিপিএম(বার), রাঙামাটি সরকারী কলেজের অধ্যক্ষ তুষার কান্তি বড়ুয়া ও রাঙামাটি পাবলিক কলেজের অধ্যক্ষ তাছাদ্দিক হোসেন কবীর আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন ।
সভায় রাঙামাটি প্রেসক্লাবের প্রবীণ সদস্যরা স্মৃতিচারণে অংশ নেন।

সভায় বক্তারা বলেন, পাহাড়ে সাংবাদিকতা কঠিন সময় পার করছে, একটি সত্য কারো পক্ষে বা কারো বিপক্ষে যাবে এটা স্বাভাবিক, কারো চোখ রাঙানিকে ভয় করে নয়, সত্য ও ন্যায় প্রতিষ্ঠায় সাংবাদিকদের বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ প্রকাশ করতে হবে।

বক্তারা আরো বলেন, পাহাড়ের সাংবাদিকদের লিখনি ও সরকারের সদিচ্ছার কারণে ১৯৯৭ সনে পার্বত্য শান্তি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছিলো। যতই বাঁধা আসুক গণমাধ্যম কর্মীদের সত্য ও ন্যায়ের পক্ষে সংবাদ পরিবশেন করার আহবান জানান বক্তারা।

প্রসঙ্গত: ১৯৭৮ সালের ২৩ নভেম্বর পার্বত্য চট্টগ্রামের কর্মরত সাংবাদিকদের নিয়ে রাঙামাটিতে প্রথম এ ক্লাবের জন্ম হয়। দীর্ঘ সময়ের পথ পরিক্রমায় রাঙামাটি প্রেসক্লাব গণমাধ্যমকর্মী ও সাধারণ মানুষের প্রতিষ্ঠান হিসেবে প্রতিষ্ঠা লাভ করেছে এবং পার্বত্য চট্টগ্রামের শান্তি সম্প্রীতি ও উন্নয়নের চিন্তা-চেতনার  প্রেরণা হিসেবে কাজ করে চলেছে।

আলোচনা সভা শেষে দুপুরে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে প্রীতি ভোজ অনুষ্ঠানের মধ্যদিয়ে কর্মসূচী শেষ হয়।


রাঙামাটি |  আরও খবর
এইমাত্র পাওয়া
আর্কাইভ
সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত, ২০১৭-২০১৮।    Design & developed by: Ribeng IT Solutions