শুক্রবার | ০৩ এপ্রিল, ২০২০
বান্দরবানের সরই ইউনিয়ন পরিষদ হতে হাসনাভিটা রাস্তার মাথা পর্যন্ত রাস্তার উদ্বোধন

বর্তমান সরকারের আন্তরিকতায় পাহাড়ের আনাচে কানাচে উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়িত হচ্ছে : পার্বত্যমন্ত্রী

প্রকাশঃ ১৬ ফেব্রুয়ারী, ২০২০ ১০:৪৭:০৮ | আপডেটঃ ০২ এপ্রিল, ২০২০ ১০:২৪:২৮  |  ২৪৬
সিএইচটি টুডে ডট কম, বান্দরবান।  অবশেষে দীর্ঘদিনের ভোগান্তি থেকে মুক্তি পেল বান্দরবানের লামা উপজেলার সরই ইউনিয়নের হাসনাভিটা এলাকার জনসাধারণ। সড়ক না থাকা আর যোগাযোগ ব্যবস্থার অপ্রতুলতার জন্য সীমাহীন কষ্ট ভোগ করছিল এই এলাকার বাসিন্দারা।

হাসনাভিটা এলাকার বাসিন্দাদের যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়নের জন্য পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের বাস্তবায়নে এই রাস্তার কাজ শুরু করে পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড বান্দরবান ইউনিট অফিস। ৪ কোটি ৩৭ লক্ষ টাকা ব্যয়ে ৫.৫০ কিলোমিটার এই সড়কের নির্মাণ কাজ তদারকি করেন পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড বান্দরবান ইউনিট এর সাবেক নির্বাহী প্রকৌশলী মো:আবদুল আজিজ।

এদিকে শনিবার সকালে পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে এই রাস্তার উদ্বোধন করেন। এসময় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মো:শামীম হোসেন, লামা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নুর-এ জান্নাত রুমী,উপজেলা চেয়ারম্যান
মো:মোস্তফা জামাল, পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদের সদস্য কাজল কান্তি দাশ, পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্য মোজাম্মেল হক বাহাদুর,পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড বান্দরবান ইউনিটের প্রকল্প পরিচালক মো:আবদুল আজিজ, নির্বাহী প্রকৌশলী আবু বিন মোহাম্মদ ইয়াছির আরাফাত,লামা উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক বিজয় আইচসহ বিভিন্ন সরকারী বেসরকারি কর্মকর্তা ও স্থানীয় জনসাধারণ উপস্থিত ছিলেন।

হাসনাভিটা রাস্তা উদ্বোধন শেষে পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি বলেন, শান্তি চুক্তির পর থেকে বর্তমান সরকারের প্রচেষ্টায় পার্বত্য এলাকায় বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়িত, পার্বত্য এলাকার উন্নয়নে সরকার আন্তরিক। পার্বত্য জেলার  আনাচে কানাচে রাস্তা ,শিক্ষা প্রতিষ্টানসহ নানান উন্নয়ন কাজ তরান্বিত হচ্ছে। এসময় পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি  আরো বলেন ,এই রাস্তা উদ্বোধনের ফলে এলাকার আর্থ সামাজিক অবস্থার উন্নয়ন হবে এবং উৎপাদিত শাকসবজি ও ফল মুল আমদানি রপ্তানি সহজলভ্য হবে।


বান্দরবান |  আরও খবর
এইমাত্র পাওয়া
আর্কাইভ
সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত, ২০১৭-২০১৮।    Design & developed by: Ribeng IT Solutions