শনিবার | ১৭ নভেম্বর, ২০১৮
চট্টগ্রাম ম্যাক্স হাসপাতালে আইসিইউতে ভর্তি

প্রবীণ সাংবাদিক একে এম মকছুদ আহম্মদের জন্য সকলের কাছে দোয়া প্রার্থনা

প্রকাশঃ ৩০ অগাস্ট, ২০১৮ ১০:৪৭:৪৫ | আপডেটঃ ১৬ নভেম্বর, ২০১৮ ১১:৫১:২৩  |  ৩১৭
সিএইচটি টুডে ডট কম, রাঙামাটি। পার্বত্য চট্টগ্রাম অঞ্চলের চারণ সাংবাদিক সংবাদপত্রের প্রথিকৃত দৈনিক গিরিদর্পণ সম্পাদক ও দৈনিক ইত্তেফাক পত্রিকার রাঙামাটি প্রতিনিধি এ কে এম মকছুদ আহমেদ দ্বিতীয় বারের মতো হার্ট স্ট্রোক করে গুরুতর অসুস্থ হয়ে চট্টগ্রাম ম্যাক্স হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

গতকাল (২৯ আগষ্ট) বুধবার রাত সাড়ে ৯ টার দিকে নিজ বাস ভবনে হার্ট স্ট্রোক করে মাথা ঘুরে পড়ে গিয়ে মাথায় ও নাকে মারাত্মক আঘাতপ্রাপ্ত হন।

এতে তাঁর নাক দিয়ে রক্তক্ষরন শুরু হলে তাকে রাতে সাড়ে ১১ টার দিকে রাঙামাটি সদর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসকরা সারারাত নাকের রক্তক্ষরন বন্ধ করার চেষ্টা চালান। ভোর পর্যন্ত তার নাক দিয়ে রক্তক্ষরন বন্ধ না হলে চিকিৎসকরা তাকে চট্টগ্রামে মেডিক্যালে পাঠানোর নিদের্শ প্রদান করে। আজ বৃহস্পতিবার ভোর ৬টার দিকে চট্টগ্রাম মেডিকেল হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।
চট্টগ্রাম মেডিকেল হাসপাতালে নেয়ার পর দৈনিক ইত্তেফাক এর রাঙামাটি প্রতিনিধি ও স্থানীয় পত্রিকা দৈনিক গিরিদর্পণ সম্পাদক এ কে এম মকছুদ আহমেদ এর হার্ট স্ট্রোক রিপোর্ট ধরা পড়ে। পরে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য চট্টগ্রাম ম্যাক্স হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বর্তমানে তিনি ম্যাক্স হাসপাতালে আইসিইউতে হার্ট বিশেষজ্ঞ ডাক্তার রেদোয়ানের নিবিড় পর্যবেক্ষণে চিকিৎসারত রয়েছেন।

গতকাল রাতে তার অসুস্থতার সংবাদ ছড়িয়ে পড়লে রাঙ্গামাটি সদর হাসপাতালে সাংবাদিকদের ভীড় জমে। তার দ্রুত আরোগ্য কামনায় রাঙামাটির সর্বস্তরের মানুষ দোয়া করেন। তার পরিবারর পক্ষ থেকে রাঙামাটি জেলাবাসী ও দেশবাসীর কাছে দৈনিক গিরিদর্পন সম্পাদক এ,কে,এম মকছুদ আহমেদের জন্য দোয়া কামনা করেছেন।

উল্লেখ্য, ২০১৫ সালের ৩১ জানুয়ারী হঠাৎ তিনি হৃদরোগে আক্রান্ত হন। প্রথমে তাকে রাঙামাটি সদর হাসপাতালে ভর্তি করানো হয় এবং ১ ফেব্রুয়ারী দুপুরে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য চট্টগ্রাম হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। এর ২ দিন পর তাকে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন হাসপাতালে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের তত্ত্বাবধানে চিকিৎসা সেবা প্রদান করা হয়। দীর্ঘ দিন ভালো থাকলেও গতকাল মঙ্গলবার (২৯ আগষ্ট) আবারো তিনি মাথা ঘুরে পড়ে যান এবং মাথায় ও নাকে আঘাতপ্রাপ্ত হন।

মিডিয়া |  আরও খবর
এইমাত্র পাওয়া
আর্কাইভ
সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত, ২০১৭-২০১৮।    Design & developed by: Ribeng IT Solutions