সোমবার | ২২ জুলাই, ২০২৪

কেএনএফ সন্দেহে গ্রেপ্তার ৩জন, জেল হাজতে প্রেরণ

প্রকাশঃ ১৩ জুন, ২০২৪ ০৮:৫৩:৫৩ | আপডেটঃ ২২ জুলাই, ২০২৪ ১১:৪৭:৫৮  |  ৩০০
সিএইচটি টুডে ডট কম, বান্দরবান।   বান্দরবানের রুমা উপজেলায় যৌথবাহিনীর অভিযানে কুকি-চিন ন্যাশনাল ফ্রন্টের (কেএনএফ) সদস্য সন্দেহে আরও ৩জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। 

বুধবার (১২ জুন) তাদের বান্দরবানের রুমা উপজেলা থেকে গ্রেপ্তার করে যৌথবাহিনীর সদস্যরা।

এদিকে বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) বিকেলে গ্রেপ্তারকৃতদের কঠোর পুলিশি পাহারায় রুমা সদর থেকে বান্দরবান চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন, বান্দরবানের রুমা উপজেলার বাসিন্দা জন পল বম (২৭), লাল রুলাল খুপ বম (৫০)ও জনি লুসাই (৪১)।
এসময় আদালতের বিচারক সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মাইসুমা সুলতানা আসামিদের জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন।
বান্দরবান আদালতের জিআরও বিশ্বজিৎ সিংহ বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, রুমা থানায় দায়ের করা মামলায় ৩ আসামিকে আদালতের মাধ্যমে জেলে পাঠানো হয়েছে। 

গত ২ এপ্রিল রাতে বান্দরবানের রুমা সোনালী ব্যাংকে হামলা, পুলিশ-আনসারের অস্ত্র লুট এবং পরে ৩ এপ্রিল দুপুরে থানচি উপজেলার সোনালী ব্যাংক ও কৃষি ব্যাংকে ডাকাতি, হামলা ও টাকা লুটের ঘটনা ঘটে। এদিকে এসব ঘটনায় আসামিদের ধরতে বান্দরবানে শুরু হয়েছে যৌথবাহিনীর অভিযান। অভিযানে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব), পুলিশ, বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি), আনসারের সঙ্গে সঙ্গে অংশ নিচ্ছে সেনাবাহিনী।

এদিকে ঘটনার পর রুমা থানায় ১৩টি, থানচি থানায় চারটি, বান্দরবান সদর থানায় একটি এবং রোয়াংছড়ি থানায় তিনটিসহ মোট ২১টি মামলা হয়। চলমান এ অভিযানে এই পর্যন্ত কেএনএফের সর্বমোট ৯৯জন সদস্য ও সহযোগীকে গ্রেপ্তার করেছে যৌথবাহিনী।


বান্দরবান |  আরও খবর
এইমাত্র পাওয়া
আর্কাইভ
সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত, ২০১৭-২০১৮।    Design & developed by: Ribeng IT Solutions