সোমবার | ২৫ মার্চ, ২০১৯
চট্টগ্রাম বিভাগীয় আইন শৃঙ্খলা সভায় নির্বাচন কমিশনার কবিতা খানম

উপজেলা নির্বাচনে পাহাড়ে সেনাবাহিনী থাকছে

প্রকাশঃ ১৩ মার্চ, ২০১৯ ১০:৫৭:৫৬ | আপডেটঃ ২৪ মার্চ, ২০১৯ ০৯:৪০:৩৭  |  ৪৯৯
সিএইচটি টুডে ডট কম ডেস্ক। নির্বাচন কমিশনার কবিতা খানম বলেছেন, আমরা একটি অবাধ সুষ্ঠ ও নিরপেক্ষ নির্বাচন উপহার দিতে চাই, নির্বাচনে কোন ধরণের অনিয়ম পক্ষপাত মুলক আচরন সহ্য করা হবে না।

তিনি আরো বলেন, উপজেলা পরিষদের নির্বাচনে তিন পার্বত্য জেলায় সেনা মোতায়েন থাকবে  “তিন পার্বত্য জেলায় সেনাবাহিনী মোতায়েনের বিষয়ে আমরা কমিশনকে জানানো হয়েছে,  এই ব্যাপারে শিগগিরি পরিপত্র জারি হবে। যেহেতু ১৮ তারিখে (১৮ মার্চ) নির্বাচন হবে, আমাদের হাতে কিন্তু সময় নেই। এ জন্য যত দ্রুত সম্ভব আমরা এই বিষয়ে আমরা সিদ্ধান্ত নিতে যাচ্ছি “

উপজেলা পরিষদ নির্বাচনকে সামনে রেখে চট্টগ্রাম বিভাগে আইন-শৃঙ্খলা বিষয়ক মতবিনিময় সভায় বুধবার (১৩ মার্চ) তিনি এই তথ্য জানান। সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন নির্বাচন কমিশনার কবিতা খানম।

নির্বাচনে পক্ষপাতমূলক আচরণ না করার নির্দেশনা দিয়ে কবিতা খানম বলেন, কোনো প্রলোভন যেন আপনাদের স্পর্শ না করে। প্রার্থীরা শুধু প্রার্থী হিসেবেই থাকবে। অন্য কোনো পরিচয়ে তারা যেন আপনাদের কাছে না পরিচিত না হন। তাহলে পক্ষপাতমূলক আচরণের সুযোগ থাকবে না। প্রথম ধাপের নির্বাচন আমরা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করেছি। বাকি চারটি ধাপের নির্বাচনও সুষ্ঠুভাবে করতে চাই।

সভায় নির্বাচন কমিশন (ইসি) সচিব হেলালুদ্দীন আহমেদ জানান, কক্সবাজার সদর উপজেলায় ইভিএম পদ্ধতিতে ভোটগ্রহণের ক্ষেত্রেও সেনাসদস্যরা দায়িত্ব পালন করবেন। আজকেই (বুধবার) চিঠি যাচ্ছে। সেখানে প্রত্যেক কেন্দ্রে সেনাবাহিনী থাকবে। নির্বাচন কমিশনেরও প্রচুর সংখ্যক কর্মকর্তা থাকবেন।
তিনি আরও বলেন, চট্টগ্রামের ফটিকছড়ি, লোহাগাড়া, পটিয়া ও বোয়ালখালীতে ভোটগ্রহণের সময় এক প্লাটুন করে অতিরিক্তি বিজিবি মোতায়েন থাকবে।
তফসিল অনুযায়ী, ১৮ মার্চ থেকে ৩১ মার্চের মধ্যে পার্বত্য তিন জেলাসহ চট্টগ্রাম বিভাগের উপজেলাগুলোতে বিভিন্ন ধাপে নির্বাচন হওয়ার কথা রয়েছে।
অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার শংকর রঞ্জন সাহার সভাপতিত্বে সভায় চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি মনিরুজ্জামান মিয়াসহ আইনশৃংখলা বাহিনীসহ বিভিন্ন সংস্থার প্রতিনিধিগন, বৃহত্তর চট্টগ্রাম, ও পার্বত্য চট্টগ্রামের রিটানিং ও সহকারি রিটানিং কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

রাঙামাটি |  আরও খবর
এইমাত্র পাওয়া
আর্কাইভ
সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত, ২০১৭-২০১৮।    Design & developed by: Ribeng IT Solutions