মঙ্গলবার | ২৮ জুন, ২০২২

দীপংকরের পক্ষে প্রচারণায় জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও মেয়র

প্রকাশঃ ২২ মে, ২০২২ ০৭:০৩:৪৪ | আপডেটঃ ২৮ জুন, ২০২২ ০২:৫৫:৩১  |  ৮৯৪
সিএইচটি টুডে ডট কম, রাঙামাটি। রাঙামাটি জেলা আওয়ামীলীগের কাউন্সিল আগামী ২৪ মে মঙ্গলবার।কাউন্সিলকে ঘিরে কেউ গোপনে কেউ প্রকাশ্যে কেউবা সামাজিক মাধ্যমে ঝড় তুলছেন।

মঙ্গলবার অনুষ্ঠিতব্য কাউন্সিলে আলোচনার মুল  কেন্দ্রবিন্দু সভাপতি পদ নিয়ে। ১৯৯৬ সন থেকে টানা ২৬ দীপংকর তালুকদার এমপি সভাপতির দায়িত্ব পালন করে আসছেন। পাহাড়ের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষা, শান্তি চুক্তি স্বাক্ষর, উন্নয়নসহ নানা ক্ষেত্রে তার ভুমিকা ছিলো অনস্বীকার্য। দীপংকর তালুকদার জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতির পাশপাশি সংসদ সদস্য, প্রতিমন্ত্রী ও কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের সদস্য ছিলেন। বর্তমানে খাদ্য মন্ত্রণালয় সর্ম্পকিত স্থায়ী কমিটির সভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন। দলে একক আধিপত্যে থাকার কারণে তাকে ব্যবহার অনেকে অর্থ বিত্তের মালিক হয়েছেন । আবার অনেকে তার সাথে বাসায় দেখা করতে গেলে কখনো কখনো খারাপ আচরণ করতেন। জেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি নিখিল কুমার চাকমা জেলা পরিষদের আবারো চেয়ারম্যান হওয়ার চেষ্টার বিরোধীতা এবং পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের চেয়ারম্যান হওয়ার সময় নানা বাঁধা, মানসিকভাবে চাপে রাখাসহ নানা কারণে অনেকে দীপংকর তালুকদারের উপর ক্ষুব্দ। আর সেই কারণে তারা বিকল্প প্রার্থী হিসাবে নিখিল কুমার চাকমাকে দাঁড় করিয়েছেন।

কাউন্সিলে ইলেকশন নাকি সিলেকশন হবে, সেটি নির্ধারন করা না হলেও যে যার মত করে প্রচারণা চালাচ্ছেন। অনেক সময় দেখা যায়, নন-কাউন্সিলাররা আর্থিক সুযোগ সুবিধা নিতে সকালে যদি দীপংকর তালুকদারের বাসায় যান, তাহলে রাতে যান নিখিল কুমার চাকমার বাসায়। তাদের ভোট না থাকলেও তাদের অনেকে সামাজিক মাধ্যমে নানা হুমকি ধামকি দিয়ে থাকেন। অনেকে গত ৩ মাসে জেলা পরিষদ ও উন্নয়ন বোর্ড থেকে দাদার (দীপংকর তালুকদার+ নিখিল কুমার চাকমা) পক্ষে থাকবে বলে কাজও ভাগিয়ে নিয়েছে। 

এদিকে দীপংকর তালুকদারকে আবারো সভাপতি পদে বিজয়ী করতে মাঠে নেমেছেন রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অংসুই প্রু চৌধুরী, রাঙামাটি পৌরসভার মেয়র আকবর হোসেন চৌধুরী, সাবেক মহিলা সাংসদ ফিরোজা বেগম চিনু, ছাত্রলীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবকলীগসহ অঙ্গ সংগঠনের নেতা কর্মীরা। তারা বিভিন্ন উপজেলা সফরে গিয়ে দীপংকর তালুকদারের পক্ষে কাউন্সিলারদের কাছে ভোট চাইছেন।  তবে নিরবে কাজ করছেন নিখিল সমর্থকরা।

রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অংসুপ্রু চৌধুরী বলেন, কেবল রাঙামাটি নয়, পাহাড়ে দীপংকর তালুকদারের বিকল্প নেই, তিনি অসম্প্রদায়িক চেতনার মানুষ। পাহাড়ী বাঙালীর মধ্যে শান্তি চুক্তির মাধ্যমে সেতু বন্ধন রচনা করেছেন। এখানে চলমান সন্ত্রাস, অস্ত্রবাজের বিরুদ্ধে কথা বলেছেন, প্রতিবাদ করেছেন, বঙ্গবন্ধু হত্যার প্রতিবাদ করেছেন, তিনি নেতা কর্মী বান্ধব তাই আমরা আবারো সভাপতি পদে নির্বাচিত করার জন্য কাজ করছি।  

এইমাত্র পাওয়া
আর্কাইভ
সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত, ২০১৭-২০১৮।    Design & developed by: Ribeng IT Solutions