রবিবার | ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২৩

খাগড়াছড়িতে মিথ্যা মামলায় বিএনপি’র নেতাকর্মীদের হয়রানির অভিযোগ

প্রকাশঃ ৩০ মে, ২০২৩ ০৮:৫৬:৪২ | আপডেটঃ ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২৩ ০৮:০৮:২৩  |  ৩৭১
সিএইচটি টুডে ডট কম, খাগড়াছড়ি। খাগড়াছড়িতে আওয়ামীলীগের মিথ্যা বানোয়াট মামলায় বিএনপি নেতৃবৃন্দ ও শত শত নেতাকর্মীদের বাড়িতে অভিসানের নামে তল্লাশি চালাচ্ছে পুলিশ।

বিএনপির এক বিবৃতিতে বলা হয়, গত ২৬মে ২৩, খাগড়াছড়িতে বিএনপির সমাবেশে যোগ দিতে আসার পথে খাগড়াছড়ি আওয়ামীলীগ অফিসের সামনে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল নোমানের গাড়ীতে হামলা ও ভাংচুর করে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা। এছাড়াও সমাবেশে আগত শতশত নেতাকর্মীদের উপর বিক্ষিপ্তভাবে হামলা চালায় তারা। হামলায় খাগড়াছড়ি জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি ক্ষেত্র মোহন রোয়াজা সহ অন্তত ৫জন গুরুতর আহত হয়। জেলা বিএনপি এ ঘটনার জন্য থানায় মামলা করতে গেলে থানায় মামলা গ্রহন না করায়, ২৮ মে ২০২৩তারিখ আদালতের মাধম্যে মামলা করা হয়। অথচ বিএনপির দায়েরকৃত মামলার আসামীরা প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়াচ্ছে। অপরদিকে আওয়ামীলীগের দায়ের করা মিথ্যা, বানোয়াট ও কাউন্টার মামলায় বিএনপির নেতাকর্মীদের গ্রেফতার করা হচ্ছে এবং গ্রেফতারের নামে খাগড়াছড়ি জেলা ব্যাাপি রাতভর বিএনপির নেতাকর্মীদের বাড়ী ঘরে পুলিশ অভিযানের নামে বাড়ি ঘরে অভিযান চালিয়ে এক নৈরাজ্যকর ও ভীতিকর পরিস্থিতির সৃষ্টি করছে। এ সময় বিএনপির দুই নেতাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। গ্রেফতারকৃতরা হচ্ছে খাগড়াছড়ি সদর পৌর বিএনপির ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক নেছার আলী ও ৬ নং ওয়ার্ড বিএনপির সভাপতি আব্দুল কুদ্দুস। সোমবার দিবাগত রাতে তাদের নিজ নিজ বাসা থেকে গ্রেফতার করা হয়।

খাগড়াছড়ি জেলা বিএনপির সভাপতি ও সাবেক সংসদ সদস্য ওয়াদুদ ভূইয়া বলেন, সোমবার রাত থেকে বিএনপি নেতাদের বাড়ীতে পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে। অনেক নেতাকর্মীর বাড়ী ও আসবাবপত্র তছনছ করা হয়েছে। বাড়ীতে থাকা নারীদেরও লাঞ্চিত করছে। তিনি অবিলম্বে মিথ্যা বানোয়াট মামলা প্রত্যাহার ও নেতাকর্মীদের গ্রেফতারের নামে পুলিশী হয়রানী বন্ধ করার দাবী জানিয়েছেন। অন্যথায় জেলা ব্যাপি হরতাল বা অবরোধের মত কর্মসূচী দিতে বিএনপি বাধ্য হবে।

খাগড়াছড়ি |  আরও খবর
এইমাত্র পাওয়া
আর্কাইভ
সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত, ২০১৭-২০১৮।    Design & developed by: Ribeng IT Solutions