শনিবার | ০১ অক্টোবর, ২০২২

বান্দরবানে প্রদর্শিত হলো " গিরিকন্যা "

প্রকাশঃ ১৮ মার্চ, ২০২২ ০২:৩৬:০৯ | আপডেটঃ ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০২২ ০১:৫৭:১৫  |  ৪২৮

সিএইচটি টুডে ডট কম, বান্দরবান। পার্বত্য জেলা বান্দরবানে মারমা ভাষায় নির্মিত  প্রথম চলচ্চিত্র  " গিরিকন্যা " উদ্বোধন করেছেন পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি। শুক্রবার (১৮ মার্চ) সন্ধ্যায় বান্দরবান ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠির সাংস্কৃতিক ইনষ্টিটিউটে এই চলচ্চিত্রটি উদ্বোধন করা হয়

 

মারমা জনগোষ্ঠীর প্রবীণ চিকিৎসক মং উষা থোয়াইয়ের লেখা গল্পে চলচ্চিত্রটি নিমার্ণ করা হয়, চলচ্চিত্রের প্রযোজকও মং উষা থোয়াই। চলচ্চিত্রটি পরিচালনা করেছেন প্রদীপ ঘোষ

 

উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পার্বত্য  চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি

 

অনুষ্টানে প্রধান  অতিথির বক্তবে পার্বত্য মন্ত্রী   বীর বাহাদুর উশৈসিং বলেন, সাংস্কৃতিক বৈচিত্রের সংরক্ষণ সম্প্রসারণের জন্য সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয় নানা ধরনের কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে। পার্বত্য অঞ্চলে বসবাসকারী বিভিন্ন ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী সম্প্রদায়ের ভাষা বর্ণমালা সংরক্ষণের লক্ষ্যে ২০১৭ সাল থেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর বিভিন্ন সম্প্রদায়ের নিজ নিজ মাতৃভাষার পাঠ্য বই  প্রণয়ন করে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের  বিতরণ করে আসছে। এসময় তিনি আরো বলেন, আওয়ামীলীগ সরকার আছে বলেই দেশের মানুষ ভালো আছে ,আর সুস্থ সংস্কৃতির চর্চা করে যেতে পারছে। 

 

 এসময় মন্ত্রী  পার্বত্য এলাকায় এই প্রথম মারমা ভাষায়গিরিকন্যাচলচ্চিত্র নির্মাণের জন্য  চলচ্চিত্রটির প্রযোজক পরিচালকের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন

 

অনুষ্ঠানে বান্দরবান জেলা প্রশাসক ইয়াছমিন পারভীন তিবরীজি, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার অশোক কুমার পাল,নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রট মো. কায়েসুর রহমান, লেখক_ গবেষক গীতিকার ডা. মং উষা  থোয়াই মারমা, গিরিকন্যা চলচ্চিত্রের পরিচালক প্রদীপ ঘোষ, ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠির সাংস্কৃতিক ইনিস্টিটিউটের সহকারী পরিচালক সাচপ্রু মারমা, প্রেসক্লাবের সভাপতি মনিরুল ইসলামসহ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন

 

অনুষ্ঠান শেষে মারমা ভাষায় নির্মিত গিরিকন্যা (তংস্মাসে) চলচিত্রটি বড়  পর্দায় দর্শকদের প্রদর্শন করা হয়

 

এইমাত্র পাওয়া
আর্কাইভ
সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত, ২০১৭-২০১৮।    Design & developed by: Ribeng IT Solutions