মঙ্গলবার | ২৮ জুন, ২০২২
“পদ্মা সেতু” উদ্বোধনে উচ্ছ্বাস

খাগড়াছড়িতে মসজিদ-মন্দিরে প্রার্থনা ও খাবার বিতরণ

প্রকাশঃ ২১ জুন, ২০২২ ০৮:১৯:২৮ | আপডেটঃ ২৮ জুন, ২০২২ ০৫:৩৮:৩৬  |  ১৩৮
সিএইচটি টুডে ডট কম, খাগড়াছড়ি। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নপূরণে এক বিস্ময়কর চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করে উদ্বোধন হতে যাচ্ছে, বহুল প্রত্যাশিত স্বপ্নের “পদ্মা সেতু”। বাংলাদেশ দীর্ঘ সংগ্রামের কন্টকাকীর্ণ এক পথ ধরে বেশ কয়েকটি মাইলফলক অতিক্রম করেছে এবং গৌরব ও গর্বের সাথে স্মরণীয় এক উদযাপনের মাধ্যমে এ সেতু উদ্বোধনের সময়ে পা দিয়েছে। প্রধানমন্ত্রী, গণতন্ত্রের মানষ বঙ্গকন্যা দেশনেত্রী শেখ হাসিনা কোটি মানুষের হৃদয়ের স্পন্দন অনুভব করে এই অসম্ভবকে সম্ভব করে তুলেছে।

এদিকে, স্বপ্নীল এ “পদ্মা সেতু” উদ্বোধন উপলক্ষে খাগড়াছড়িতে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ সড়ক পরিবন ও সেতু বিভাগের সংশ্লিষ্ট সকলের সুস্বাস্থ্য-দীর্ঘায়ু কামনা করে বিভিন্ন মসজিদে দোয়া মাহফিল ও খাবার বিতরণ এবং মন্দিরে মন্দিরে সমবেত প্রার্থনা ও খাবার বিতরণ করা হচ্ছে।

খাগড়াছড়ি সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি প্রদীপ চৌধুরী বলেন, খাগড়াছড়ির সুযোগ্য ও মানবিক জেলা প্রশাসক প্রতাপ চন্দ্র বিশ^াস এর আন্তরিকতায় জেলা প্রশাসনের সহযোগিতা এবং খাগড়াছড়ি সাংবাদিক ইউনিয়ন (কেইউজে) আয়োজনে ২১ জুন মঙ্গলবার সকালে জেলা শহরের পানখাইপাড়া বটতলাস্থ ধর্মরাজিক (বড়) বৌদ্ধ বিহারে ধর্মদেশনা ও খাবার খাবার বিতরণ করা হয়েছে।

অনুষ্ঠানে প্রধান ধর্মীয় আলোচক ছিলেন, ধর্মরাজিক বৌদ্ধ বিহারের বিহারধ্যাক্ষ প্রজ্ঞাবংশ মহাথের ভান্তে। তিনি স্বপ্নের পদ্মা সেতু উদ্বোধন উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ সকলের সুস্বাস্থ্য-দীর্ঘায়ু এবং বন্যাসহ সকল প্রাকৃতিক দুর্যোগ থেকে মুক্তির জন্য মঙ্গল কামনা করেন। স্বপ্নের সেতু যেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সুন্দর ভাবে উদ্ভোধন করতে পারেন সে জন্য সমবেত প্রার্থনা করা হয়। এ সময় খাগড়াছড়ি সাংবাদিক ইউনিয়নের সদস্য মংসাপ্রু মারমা, রিপন সরকার, রূপায়ন তালুকদার ও শংকর চৌধুরীসহ এলাকার বৌদ্ধ ধর্মালম্বী নর-নারীরা উপস্থিত ছিলেন।

২১ জুন মঙ্গলবার দুপুরে স্টেডিয়াম সংলগ্ন সিঙ্গিনালাস্থ শ্রী শ্রী লোকনাথ সেবাশ্রমেও সমবেত প্রার্থনা ও খাবার বিতরণ করা হয়েছে। ২২ জুন বুধবার জেলা প্রশাসনের সহযোগিতা এবং কেইউজের আয়োজনে জেলা সদরের কালেক্টরেট মসজিদ এতিমখানায় দোয়া মাহফিল মোনাজাত, ২৩ জুন বৃহস্পতিবার খাগড়াপুর শ্রী শ্রী জগন্নাথ মন্দি এবং ২৪ জুন জেলা সদরের দীঘিনালা সড়কস্থ বিবেকানন্দ স্টুডেন্টস হোক প্রাঙ্গণে খাবার বিতরণ ও সমবেত প্রার্থনার মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ সড়ক পরিবন ও সেতু বিভাগের সংশ্লিষ্ট সকলের সুস্বাস্থ্য-দীর্ঘায়ু কামনা করা হবে।

এছাড়াও নিজস্ব অর্থায়নে নির্মিত দক্ষিণাঞ্চলসহ সারাদেশের মানুষের পরম কাঙ্খিত ‘স্বপ্নের পদ্মা সেতু’ উদ্বোধন উপলক্ষে খাগড়াছড়ি সাংবাদিক ইউনিয়ন (কেইউজে) নেতৃবৃন্দ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা-কে প্রাণঢালা অভিনন্দন জানিয়েছেন বলে জানান সংগঠটির সভাপতি প্রদীপ চৌধুরী।

“পদ্মা সেতু”  উদ্বোধনে ১৮ কোটি মানুষের সাথে পাহাড়ীয়া জনপদ পার্বত্য জেলা খাগড়াছড়িবাসীও উচ্ছ্বাসিত আর বহু অপেক্ষায় থাকা পদ্মা তীরের মানুষতো আনন্দে আত্মহারা।    

উল্লেখ্য, পদ্মা সেতু হলো পদ্মা নদীর উপর একটি বহুমুখী সড়ক-রেল সেতা, যা বাংলাদেশের সর্ববৃহৎ সেতু এবং সড়ক চলাচলের জন্য প্রথম নির্দিষ্ট নদী পারাপারের মাধ্যম। এটি লৌহজং, মুন্সীগঞ্জকে শরীয়তপুর ও মাদারীপুরের সাথে সংযুক্ত করছে। এছাড়াও এটি দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল, উত্তর ও পূর্বাঞ্চলের সাথে তা সংযুক্ত করবে। বাংলাদেশের স্বপ্নীল ও আবেগপূর্ণ এ পদ্মা সেতুর দৈর্ঘ্য ৬.১৫ কিমি। স্বপ্নের এ পদ্মা সেতুর নির্মাণ ব্যয় প্রায় ৩০ হাজার ১৯৩ কোটি টাকা আর সেতুর নিচতলার রেললাইন ঘিরে রাজধানী ঢাকা থেকে যশোর পর্যন্ত চলমান রেল লিঙ্ক প্রকল্পের ব্যয় ধরা হয়েছে প্রায় ৩৯ হাজার ২৪৬ কোটি টাকা।

খাগড়াছড়ি |  আরও খবর
এইমাত্র পাওয়া
আর্কাইভ
সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত, ২০১৭-২০১৮।    Design & developed by: Ribeng IT Solutions