সাজেক পর্যটন কেন্দ্রে আগুনে পুড়ল রিসোর্ট

প্রকাশঃ ১২ জানুয়ারী, ২০২২ ০৮:৩১:৪৮ | আপডেটঃ ২১ মে, ২০২২ ০৩:৪৩:০০
সিএইচটি টুডে ডট কম, রাঙামাটি। রাঙামাটির বাঘাইছড়ি উপজেলার সাজেক পর্যটন কেন্দ্রে আবারো আগুনে পুড়ল একটি রিসোর্ট। গত এক মাসের ব্যবধানে বুধবার আবার আগুন লাগে সেখানে। এতে কংলাক পাহাড়ের চূড়ায় ‘রক প্যারাডাইস’ নামে রিসোর্টটি ভস্মীভূত হয়েছে। এর আগে ২০২১ সালের ২ ডিসেম্বর রাতে আগুন লেগে সাজেকে একটি রেস্টুরেন্ট ও একটি বসতঘরসহ তিনটি রিসোর্ট পুড়ে গেছে। উপজেলা প্রশাসন ও স্থানীয় সূত্রে এ খবর নিশ্চিত করা হয়।

বাঘাইছড়ি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. শরিফুল ইসলাম জানান, বুধবার ভোরে সাজেক পর্যটন কেন্দ্রের কংলাক পাহাড়ে রক প্যারাডাইস রিসোর্টে আগুন লাগে। ওই রিসোর্ট থেকেই আগুনের সূত্রপাত। তাৎক্ষণিক সেনাবাহিনী গিয়ে স্থানীয় লোকজনের সহায়তায় আগুন নেভানোর চেষ্টা চালান। কিন্তু প্রচুর বাতাস ও পানির সংকটের কারণে অনেক চেষ্টার পরও আগুন পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব না হওয়ায় রিসোর্টটি ভস্মীভূত হয়ে যায়।

স্থানীয়রা জানান, পরে সেনাবাহিনীর সহায়তায় খাগড়াছড়ির দীঘিনালা থেকে ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট পৌঁছালে ঘন্টাব্যাপী চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। আগুনে হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি।

দীঘিনালা ফায়ার সার্ভিসের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. নুরুন্নবী জানান, রক প্যারাডাইস রিসোর্টটি পুড়লেও পরে আমরা গিয়ে সেনাবাহিনী ও স্থানীয় লোকজনের সহায়তায় ঘন্টাব্যাপী চেষ্টায় এক পর্যায়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব হয়েছে। এতে অনেক ক্ষয়ক্ষতি থেকে রক্ষা পেয়েছে।

এদিকে ভস্মীভূত রিসোর্টের মালিক ওমর বিঝু দাবি করে বলেন, সাজেকের কংলাকে তার বাকি  রিসোর্টগুলো পুড়িয়ে দিতে কেরোসিন ছিটিয়ে নাশকতা চালানো হয়েছে। এজন্য টুপিস ত্রিপুরা নামে স্থানীয় এক যুবককে দায়ী করেন তিনি।

তার দাবি রক প্যারাডাইস রিসোর্টে চুরির দায়ে অভিযুক্ত টুপিস ত্রিপুরাকে এক মাস আগে এলাকা থেকে বিতাড়িত করা হয়েছিল। প্রতিহিংসার বশবর্তী হয়ে সে এ কাজ করে থাকতে বলে ধারণা রিসোর্টটির মালিকের।

সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত, ২০১৭-২০১৮।    Design & developed by: Ribeng IT Solutions