এ সরকার সব ধর্মের উন্নয়নে কাজ করছে: ধর্ম প্রতিমন্ত্রী

প্রকাশঃ ০৭ মার্চ, ২০২১ ০৫:০৪:৩২ | আপডেটঃ ১৯ মে, ২০২১ ০৪:৩৩:৪৭
সিএইচটি টুডে ডট কম, রাঙামাটি। ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী মো. ফরিদুল হক খান বলেছেন, এ সরকার সব ধর্মের উন্নয়নে কাজ করছে। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ইসলামিক ফাউন্ডেশন সৃষ্টি করে গেছেন। এ ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে সব ধর্মীয় লোকজনের উন্নয়নে আন্তরিকভাবে কাজ করে যাচ্ছেন, বঙ্গবন্ধুর কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। শেখ হাসিনার নির্দেশনায় ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে মুসলিম, হিন্দু, বৌদ্ধ, খিষ্টানসহ সব ধর্মের লোকজন যাবতীয় সুযোগ সুবিধা পাচ্ছেন। এ জন্য ‘ধর্মীয় সম্প্রীতি ও সচেতনতা বৃদ্ধিকরণ’ শীর্ষক প্রকল্প চালু করেছে সরকার। এ প্রকল্পের মাধ্যমে সব ধর্মের মানুষ সমান সুবিধা পাবে।

রোববার সকালে পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের মাইনি মিলনায়তনে আয়োজিত ‘ধর্মীয় সম্প্রীতি ও সচেতনতামূলক’ প্রশিক্ষণের উদ্ধোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ধর্মবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, সরকার ধর্ম মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে ১৬-১৮ কোটি টাকার মধ্যে জেলা শহরে মসজিদ নির্মাণ এবং উপজেলা পর্যায়ে ৭-৮ কোটি টাকার মধ্যে মসজিদ নির্মাণ করে দিচ্ছে। তাছাড়াও প্রতিটি জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে মন্দির, গির্জা ও বৌদ্ধ বিহার নির্মাণ করে দিচ্ছে সরকার। পার্বত্য এলাকায় সব সম্প্রদায়ের মধ্যে সম্প্রদায়িক সম্প্রীতির উন্নয়নে সবাইকে একযোগে কাজ করার আহবান জানান তিনি।

অনুষ্ঠানে রাঙামাটির সংসদ দীপংকর তালুকদার, ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব ও অতিরিক্ত সচিবসহ প্রশাসনিক কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলেন। প্রশিক্ষণে সদরসহ জেলার বিভিন্ন উপজেলা হতে মসজিদের ইমাম, হিন্দু পুরোহিত, বৌদ্ধভিক্ষুÍ ও খিষ্টান ধর্মের চার্চ অংশ নেন।

পরে শহরের সদর উপজেলা চত্ত্বরের জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্ষে পুস্পমাল্য দেন। এরপর ৭ মার্চ উপলক্ষে জেলা প্রশাসন কার্যালয়ে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে অংশ নেন তিনি।

সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত, ২০১৭-২০১৮।    Design & developed by: Ribeng IT Solutions