বুধবার | ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২১

বিলাইছড়িতে পঞ্চশীল প্রার্থনা ও বুদ্ধ পূজার মধ্যে দিয়ে ভিক্ষুদের ত্রেমাসিক বর্ষাবাস শুরু

প্রকাশঃ ২৩ জুলাই, ২০২১ ১০:০৪:২০ | আপডেটঃ ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ০৭:৫৫:৪৬  |  ২০৩
সিএইচটি টুডে ডট কম, বিলাইছড়ি (রাঙামাটি)। সারাবিশ্বের ন্যায় বিলাইছড়িতেও বৌদ্ধ ধর্মালম্বীরা পঞ্চশীল প্রার্থনা ও বুদ্ধপূজা মধ্যে দিয়ে ত্রেমাসিক বর্ষাবাস শুরু করেছে।

আষাঢ়ী পূর্ণিমা দিনে বৌদ্ধ ইতিহাসে - সিদ্ধার্থ মাতৃজঠরে প্রতিসন্ধি গ্রহন,রাজপুত্রের সির্দ্ধাথের গৃহ ত্যাগ,বারানসি ঋষি পতন মৃগদাবে পঞ্চবর্গীয় শিষ্যদের নিয়ে ধর্মচক্র প্রবর্তন সুত্ত দেশনা,শ্রাবস্তীর গন্ডম্ব বৃক্ষমূলে ভগবান বুদ্ধ কর্তৃক প্রতিহার্য্য ঋদ্ধি প্রদর্শন,মাতৃদেবী মায়াদেবীকে ধর্মোপদেশ প্রদানার্থে  ভগবান বুদ্ধ তুষিত স্বর্গে গমন ও ভিক্ষুদের বর্ষাব্রত অধিষ্ঠান।

এবিষয়ে বিলাইছড়ি উপজেলা ত্রিরত্ন ভিক্ষু এসোসিয়েশন সাধারণ সম্পাদক বিপুল জ্যোতি থের'র সঙ্গে যোগাযোগ করলে তিনি জানান, উপজেলায় বনবিহার ও পার্বত্যবিহার মিলে মোট ৫০ টি বৌদ্ধ বিহার রয়েছে।যা সবকটি বৌদ্ধ বিহারে পঞ্চশীল ও বৌদ্ধপূজা মধ্যে দিয়ে বর্ষাবাস শুরু হয়। প্রত্যেকটি বৌদ্ধ বিহারে স্বাস্থ্য বিধি মেনে দূরত্ব বজায় রেখে বিহারগুলো পঞ্চশীল পালনের মধ্যে দিয়ে আনুষ্ঠানিকতা হয়।

এতে বিহারে বিহারে নির্বাণগামী হওয়ার জন্য  ভিক্ষু, শ্রমন,উপাসক-উপাসিকা,দায়ক- দায়িকা ধ্যান ও শীল পালন করবেন।

জগতের সকল প্রাণী সুখীর জন্য,দঃখ হতে মুক্তি পেয়ে নির্বাণগামী হওয়ার জন্য তিনমাস পর্যন্ত বৌদ্ধ ভিক্ষুরা বিহারে অধিষ্ঠান করবেন এবং সুখশান্তি ও মঙ্গল কামনায় ধ্যানের মাধ্যমে বুদ্ধের কাছে প্রার্থনা করবেন।

এছাড়াও বিশ্বব্যাপী করোনা মহামারী থেকে সকলকে মুক্তি পাওয়ার জন্য বিহারে বিহারে প্রার্থনা করা হয়।

রাঙামাটি |  আরও খবর
এইমাত্র পাওয়া
আর্কাইভ
সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত, ২০১৭-২০১৮।    Design & developed by: Ribeng IT Solutions