বান্দরবানে প্রতিমা বির্সজনের মধ্যে দিয়ে শেষ হলো দুর্গাপূজা

প্রকাশঃ ০৮ অক্টোবর, ২০১৯ ০৪:৫২:৫৬ | আপডেটঃ ২২ অক্টোবর, ২০১৯ ০৪:০৭:৪৭
সিএইচটি টুডে ডট কম, বান্দরবান। পার্বত্য জেলা বান্দরবানে শেষ হল সনাতন ধর্মালম্বীদের অন্যতম ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজা। সকালে বান্দরবানের বিভিন্ন পূজামন্ডপে দশমী পূজা শেষে দেয়া পুস্পাঞ্জলি আর এরপরেই শুরু হয় সিদুর খেলা , আরতি আর বাদ্য প্রতিযোগিতা।

দুপুর হতেই বিভিন্ন পূজামন্ডপের প্রতিমাগুলোকে বিসর্জনের জন্য একত্রিত করা হয় বান্দরবান কেন্দ্রীয়  দুর্গা পূজামন্ডপে, এর পরপরই ট্রাকে করে সুশৃংখলভাবে বিশাল শোভাযাত্রার মাধ্যমে শুরু হয় বিসর্জনের কার্যক্রম।

এই সময় সনাতন ধর্মালম্বী নর-নারীরা একে অপরের মুখে সিদুর ও তেল ও রং দিয়ে দেবীর বির্সজনের বার্তা জানায়, মন্ডপে মন্ডপে শুরু হয় দেবীকে বিসর্জনের প্রস্তুতি।

পরে রাজার মাঠ থেকে বিসর্জন উপলক্ষে একটি বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের করা হয়। শোভাযাত্রায় স্থানীয় বিভিন্ন সনাতন ধর্মালম্বীরা ও বিভিন্ন সংগঠনের কর্মীরা অংশ নেয়। শোভাযাত্রাটি বান্দরবানের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে উজানীপাড়া সমিল ঘাটে গিয়ে জড়ো হয়। এসময় বালাঘাটা,কালাঘাটা ও বিভিন্ন পূজা মন্ডপের মুর্তিগুলো নদীর ঘাটে জড়ো করা হয়।
 
শেষে সকল প্রতিমাগুলো জড়ো করে চলে আরতি ও পুজা। এসময় পুরো এলাকা মিলনমেলায় পরিণত হয়। ঢাক ঢোল আর কাসার আওয়াজে আনন্দে মুখরিত হয়ে ওঠে সনাতনী সমাজের নারী পুরুষেরা।

শেষে এক এক করে সাংগু নদীতে বিসর্জন করা হয় দেী দূর্গাসহ অন্যান্য প্রতিমাগুলোকে।

প্রসঙ্গত,ষষ্ঠীর মাধ্যমে দেবীর বোধন দিয়ে দুর্গাপূজার শুরু আর পাঁচদিন পর দশমী শেষে প্রতিমা বিসর্জনের মাধ্যমে শেষ হল সনাতনী সম্প্রদায়ের প্রধান ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজার ।
 
সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত, ২০১৭-২০১৮।    Design & developed by: Ribeng IT Solutions