বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস উপলক্ষে র‌্যালি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

প্রকাশঃ ১১ জুলাই, ২০১৯ ০৫:৪৪:০০ | আপডেটঃ ১৭ জুলাই, ২০১৯ ০৪:১৭:১৭
সিএইচটি টুডে ডট কম, রাঙামাটি। ‘‘জনসংখ্য ও উন্নয়নে আন্তর্জাতিক সম্মেলনের ২৫ বছর: প্রতিশ্রুতির দ্রুত বাস্তবায়ন’’ এ মূলবার্তাকে বাস্তবায়নের লক্ষ্য নিয়ে নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে রাঙামাটিতে বৃহস্পতিবার (১১জুলাই) ৩০তম বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস পালিত হয়েছে।

দিবসটি উপলক্ষে জেলা পরিবার পরিকল্পনা বিভাগ র‌্যালি, আলোচনাসভা ও স্বাস্থসেবায় বিশেষ অবদান রাখায় বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ও স্বাস্থকর্মীদের পুরস্কার বিতরণের আয়োজন করে। সকালে জেলা শিল্পকলা একাডেমি প্রাঙ্গণ থেকে র‌্যালিটি শুরু হয়ে শহরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে জেলা পরিষদ প্রাঙ্গণে এসে শেষ হয়ে পরিষদ সভাকক্ষে আলোচনা সভায় মিলিত হয়।

পরিষদের সম্মেলনকক্ষে জেলা পরিবার পরিকল্পনা বিষয়ক কমিটির আহ্বায়ক ও রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ সদস্য হাজী মোঃ মুছা মাতব্বরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনাসভায় প্রধান অতিথি ছিলেন রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বৃষ কেতু চাকমা। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন সিভিল সার্জন ডাঃ শহীদ তালুকদার, সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান (মহিলা) নাসরিন ইসলাম। এছাড়া বক্তৃতা করেন রাঙ্গামাটি পরিবার পরিকল্পনা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক বেগম সাহান ওয়াজ, পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের ডিষ্ট্রিক কনসালটেন্ট ও সহকারী পরিচালক সি, সি শেখ রোকন উদ্দিন।

অনষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বলেন, দেশের অন্যান্য জেলার তুলনায় পার্বত্য অঞ্চলে বাল্য বিবাহের প্রবণতা বেশী। এর ফলে অপ্রাপ্ত বয়সের কিশোর-কিশোরীরা অপরিকল্পিতভাবে গর্ভধারণ করছে। যার ফলে এ অঞ্চলে দিন দিন জনসংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে। তিনি বলেন, বাল্য বিবাহের প্রবণতা থেকে দেশে বৃহত্তর সমাজকে বের করে আনতে হলে দরকার শিক্ষা ও সচেতনতা বৃদ্ধি।

পরিষদ চেয়ারম্যান আরো বলেন, সামাজিক সচেতনতাই পারে বাল্য বিবাহ রোধ করতে। এ অঞ্চলে জনসংখ্যা বৃদ্ধিরোধে পরিবার পরিকল্পনা গ্রহণের বিষয়ে গুরুত্ব তুলে ধরেন তিনি। পরিবার পরিকল্পনা পদ্ধতি সাধারণ মানুষের মাঝে ছড়িয়ে দিতে মাঠ কর্মীদের আরো আন্তরিকতার সাথে কাজ করার আহ্বান জানান চেয়ারম্যান ।

আলোচনা শেষে পরিবার পরিকল্পনা বিভাগে স্বাস্থ্যসেবার ক্ষেত্রে বিশেষ অবদান রাখায় বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের জনপ্রতিনিধি ও কর্মকর্তাদের পুরস্কৃত করা হয়।  

সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত, ২০১৭-২০১৮।    Design & developed by: Ribeng IT Solutions