৮২ হাজার শরনার্থী পুনর্বাসন বাতিলের দাবি বাঙালি সংগঠনগুলোর

প্রকাশঃ ১০ অক্টোবর, ২০১৮ ০২:৪৭:০৩ | আপডেটঃ ১৪ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০৯:৪৯:৫৬
সিএইচটি টুডে ডট কম, রাঙামাটি। পার্বত্য চট্টগ্রাম উপজাতীয় শরনার্থী শরণার্থী বিষয়ক টাস্কফোর্সের ৮২ হাজার শরণার্থী পুর্নবাসন কার্যক্রম বাতিলের দাবি করেছে স্থানীয় বাঙালিদের কয়েকটি সংগঠন। ভারত প্রত্যাগত উপজাতীয় শরনার্থী ও অভ্যন্তরীণ উদ্বাস্তু ৮২ হাজার পরিবারকে উপজাতীয় টাস্কফোর্সের মাধ্যমে পুনর্বাসনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। বুধবার ‘নির্যাতিত পার্বত্যবাসী’ ব্যানারে রাঙামাটিতে আয়োজিত এক মানববন্ধন থেকে এসব উপজাতীয় শরনার্থীকে পুনর্বাসন বাতিলের দাবিটি জানানো হয়েছে।

সকাল ১১টায় জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে আয়োজিত মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, নির্যাতিত পার্বত্যবাসীর আহবায়ক বেগম নুর জাহান, পার্বত্য বাঙালি ছাত্র পরিষদের কেন্দ্রীয় সভাপতি মো. মাঈন উদ্দিন, সম্পাদক মো. আবুল, বাঙালি ছাত্রঐক্য পরিষদের সভাপতি সোহেল রিগ্যান, যুব ফ্রন্টের সভাপতি আবুল মান্নান ও শ্রমিক পরিষদের সভাপতি রাসেল ইসলাম সাগর প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, পাহাড়ে এসব উপজাতীয় শরনার্থী পুনর্বাসন কার্যক্রম সম্পূর্ণ অবৈধ এবং অযৌক্তিক। অবিলম্বে সরকারকে ৮২ হাজার উপজাতীয় শরনার্থী পরিবারকে পুনর্বাসনের সিদ্ধান্ত বাতিল করতে হবে। পার্বত্য চট্টগ্রামে গুচ্ছগ্রামে বন্দি ৩২ হাজার উদ্বাস্তু বাঙালি পরবিারকে পুনর্বাসন করতে হবে। অন্যথায় পরিস্থিতি ভালো হবে না। পাহাড়ের ৪ সশস্ত্র গ্রুপকে নিষিদ্ধ করে রক্তপাত বন্ধ করতে হবে।

নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, পার্বত্য এলাকার বাঙালীরা চাকুরি, কোটাসহ সব ক্ষেত্রে অবহেলিত অপরদিকে পাহাড়ীরা একের পর এক দালান বাড়ি করছে। যে সব পুর্নবাসিত বাঙালী এখনো তাদের জায়গা জমি ফিরে পায়নি তাদের পুর্নবাসন করার দাবি জানান বক্তারা।  

সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত, ২০১৭-২০১৮।    Design & developed by: Ribeng IT Solutions