বৃহস্পতিবার | ২৯ অক্টোবর, ২০২০
খাগড়াছড়ি সাংবাদিক ইউনিয়নের মতবিনিময় সভায় কংজরী চৌধুরী

পাহাড়ের সকল স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠানকে পার্বত্য মন্ত্রণালয়ের অধীনে নিতে কাজ সরকার

প্রকাশঃ ১০ অক্টোবর, ২০২০ ০৯:৩৫:৫৬ | আপডেটঃ ২৯ অক্টোবর, ২০২০ ০৪:৩৮:১৯  |  ৩৫১
সিএইচটি টুডে ডট কম, খাগড়াছড়ি। খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কংজরী চৌধুরী বলেছেন, তিন পার্বত্য জেলার সব স্থানীয় সরকার কাঠামোকে পার্বত্য মন্ত্রণালয়ের অধীনে নিতে কাজ করছে সরকার। পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী বীর বাহাদুর পার্বত্যাঞ্চলের ‘পাহাড়ি-বাঙালি’ সকল মানুষের মৌলিক অধিকার নিশ্চিত ও জীবনমান উন্নয়নে জননেত্রীর নির্দেশনায় সরকারের সকল মন্ত্রণালয়ের সাথে সমন্বয় সাধন করছেন। পার্বত্য জেলা পরিষদ ছাড়া উপজেলা ও ইউনিয়ন পরিষদগুলো স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের অধীনে হওয়ায় প্রত্যাশিত বরাদ্দ প্রাপ্তি থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। একইভাবে পাহাড়ের সকল পৌরসভাগুলোও বরাদ্দ সংকটে জনচাহিদা পূরণে হিমশিম খাচ্ছে। গত সপ্তাহে বান্দরবানে মন্ত্রী বীর বাহাদুর তিন পার্বত্য জেলার উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান-ভাই চেয়ারম্যানদের এ সংক্রান্ত একটি গুরুত্বপূর্ন নীতি নির্ধারণী সভা করেছেন।

তিনি শনিবার সন্ধ্যায় খাগড়াছড়ি শহরে ‘খাগড়াছড়ি সাংবাদিক ইউনিয়ন (কেইউজে)’-এর কার্যালয়ে সাংবাদিকদের সাথে এক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

কেইউজে সভাপতি সাংবাদিক মো: নুরুল আজমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন দৈনিক সমকাল প্রতিনিধি প্রদীপ চৌধুরী। এসময় কেইউজে সহ-সভাপতি সৈকত দেওয়ান ও সা: সম্পাদক কানন আচার্য্য সাংবাদিকদের পেশা ও প্রাতিষ্ঠানিক সমস্যা, চ্যালেঞ্জসহ সার্বিক সীমাবদ্ধতা উত্তরণে প্রধান অতিথির সহযোগিতা কামনা করেন।

খাগড়াছড়ির সাংবাদিকদের সমস্যা সমাধানে জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কংজরী চৌধুরী বলেন, খাগড়াছড়ির সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরার নেতৃত্বে একটি দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে। এরমধ্যে আগামী ডিসেম্বরের মধ্যেই কেইউজে-এর জন্য সরকারিভাবে ভূমি বরাদ্দ, স্থায়ী কার্যালয় নির্মাণে প্রকল্প গ্রহণ, পেশাদার সাংবাদিকদের জন্য পর্যায়ক্রমে আবাসন নির্মাণ এবং পেশাগত মান উন্নয়নে দেশে ও বিদেশে প্রশিক্ষণ গ্রহণ অন্যতম।

পরে প্রধান অতিথির হাতে কেইউজে’র লোগো সম্বলিত টিশার্ট এবং জলরঙে আঁকা একটি পোট্রেট প্রদান করা হয়।

খাগড়াছড়ি |  আরও খবর
এইমাত্র পাওয়া
আর্কাইভ
সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত, ২০১৭-২০১৮।    Design & developed by: Ribeng IT Solutions