বৃহস্পতিবার | ১৩ অগাস্ট, ২০২০

দীপংকর তালুকদার খাদ্য মন্ত্রণালয় সর্ম্পকিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি হওয়ায় মুছা মাতব্বরের অভিনন্দন

প্রকাশঃ ০৮ জুলাই, ২০২০ ০২:১৯:৩৮ | আপডেটঃ ১৩ অগাস্ট, ২০২০ ০৮:৪৩:১৬  |  ৫৮৭
সিএইচটি টুডে ডট কম, রাঙামাটি। রাঙামাটি জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও সাবেক প্রতিমন্ত্রী দীপংকর তালুকদার এমপি আজ খাদ্য মন্ত্রণালয় সর্ম্পকিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি মনোনীত হওয়ায় তাকে অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানিয়েছেন রাঙামাটি জেলা আওয়ামীলীগ ও দলটি সাধারন সম্পাদক হাজী মুছা মাতব্বর।

হাজী মুছা মাতব্বর অভিনন্দন জানিয়ে বলেন, পাহাড়ী বাঙালীর অবিসংবাদিত নেতা ও পাহাড়ের রাজপুত্র দীপংকর তালুকদার এমপিকে খাদ্য মন্ত্রনালয় সর্ম্পকিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি করায় আমরা জননেত্রী শেখ হাসিনার কাছে কৃতজ্ঞ। আশা করি তার নেতৃত্বে দেশের খাদ্য উৎপাদন আরো ক্রমশ বৃদ্ধি পাবে।

২০১৮ সনের ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত নির্বাচনে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হওয়ার পর দীপংকর তালুকদারকে জনপ্রশাসন মন্ত্রনালয় সর্ম্পকিত স্থায়ী কমিটি, পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয় সর্ম্পকিত স্থায়ী কমিটি ও পরিবেশ বন ও জলবায়ু পরিবতর্ন মন্ত্রণালয় সর্ম্পকিত স্থায়ী কমিটির সদস্য করা হয়।

আওয়ামীলীগের বর্ষীয়ান নেতা নাসিমের মৃত্যুর পর খাদ্য মন্ত্রণালয় সর্ম্পকিত স্থায়ী কমিটির সভাপতির পদটি শুন্য হওয়ায় তাকে সেখানে স্থলাভিষিক্ত করা হলো।     


১৯৫২ খ্রিস্টাব্দে ১২ ডিসেম্বর রাঙামাটিতে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ১৯৭৪ খ্রিস্টাব্দে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইংরেজি সাহিত্যে স্নাতক (সম্মান) ডিগ্রি অর্জন করেন। তিনি ছাত্র জীবন থেকে রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত হন। উনসত্তর ও সাতাশির গণঅভ্যূত্থানে অংশগ্রহণ করে তিনি দুইবার কারাবরণ করেন। তিনি মহান মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেন। তিনি ১৯৭২-৭৩ খ্রিস্টাব্দে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের জগন্নাথ হলের ছাত্র সংসদের সদস্য এবং ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য নির্বাচিত হন।

১৯৭৩-৭৪ খ্রিস্টাব্দে তিনি ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক এবং ইংরেজি বিভাগীয় সমিতির প্রচার সম্পাদক নির্বাচিত হন। ১৯৮৬ খ্রিস্টাব্দে তিনি রাঙ্গামাটি জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন। ১৯৯৬ ও ২০০২ খ্রিস্টাব্দে তিনি পর পর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নির্বাচিত হন। অদ্যাবধি তিনি উক্ত পদে রয়েছেন। তিনি ১৯৯১, ১৯৯৬ ও ২০০৮ খ্রিস্টাব্দে রাঙ্গামাটি আসন থেকে সাংসদ নির্বাচিত হন। ১৯৯৮ খ্রিস্টাব্দে প্রতিমন্ত্রীর পদ মর্যাদায় পার্বত্য চট্টগ্রাম শরনার্তী বিষয়ক টাস্কফোর্সের চেয়ারম্যান নিযুক্ত হন।

তিনি ১৯৯১ খ্রিস্টাব্দে বন ও পরিবেশ মন্ত্রণালযের স্থায়ী কমিটির সদস্য, ১৯৯৬ খিস্টাব্দে বাংলাদেশ শিক্ষা কমিটি, সংস্থাপন মন্ত্রণালয সংক্রান্ত স্থায়ী কমিটি ও জাতীয় সংসদ হাউস কমিটির সদস্য ছিলেন। পার্বত্য শান্তিচুক্তি সম্পাদন তাঁর বিশেষ অর্জন। ২০০৯ খ্রিস্টাব্দে তিনি পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী নিযুক্ত হন। বর্তমানে তিনি রাঙামাটি জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য পদে বহাল রয়েছেন। তাঁর ছদ্মনামে লেখা গ্রন্থ হচ্ছে ‘প্রসঙ্গঃ পার্বত্য চট্টগ্রাম’।

২০১৮ সনের ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত নির্বাচনে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হওয়ার পর দীপংকর তালুকদারকে জনপ্রশাসন মন্ত্রনালয় সর্ম্পকিত স্থায়ী কমিটি, পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয় সর্ম্পকিত স্থায়ী কমিটি ও পরিবেশ বন ও জলবায়ু পরিবতর্ন মন্ত্রণালয় সর্ম্পকিত স্থায়ী কমিটির সদস্য করা হয়।

আজ ৮ জুলাই ২০২০ দীপংকর তালুকদারকে খাদ্য মন্ত্রণালয় সর্ম্পকিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি করা হয়।

রাঙামাটি |  আরও খবর
এইমাত্র পাওয়া
আর্কাইভ
সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত, ২০১৭-২০১৮।    Design & developed by: Ribeng IT Solutions