বৃহস্পতিবার | ১৩ অগাস্ট, ২০২০
বান্দরবানে

সামাজিক দুরত্ব নিশ্চিত না করে লকডাউনের মধ্যে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান খোলা

প্রকাশঃ ০৫ জুলাই, ২০২০ ০৪:৫১:৫৫ | আপডেটঃ ১৩ অগাস্ট, ২০২০ ০৫:২৯:৪৯  |  ২৬৩
সিএইচটি টুডে ডট কম, বান্দরবান। বান্দরবান জেলা প্রশাসন থেকে রেডজোন ঘোষিত বান্দরবান ও লামা পৌরসভা এলাকার জন্য জারীকৃত গণবিজ্ঞপ্তির সংশোধনী প্রকাশ করা হয়েছে। নতুন গণবিজ্ঞপ্তি অনুসারে  ৫ জুলাই (রবিবার) হতে বান্দরবানে লকডাউন চললে ও মুদি দোকান, ফলমূল এবং মনিহারি দ্রব্য সামগ্রীর দোকান প্রতিদিন সকাল ৭টা হতে বিকাল ৪টা পর্যন্ত খোলা রাখার নির্দেশনা প্রদান করা হয়েছে।
 
গণবিজ্ঞপ্তিতে সার, বীজ, কীটনাশক, ডিজেল অর্থাৎ কৃষি উপকরণের দোকানসমুহ খোলা রাখার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। বিজ্ঞপ্তিতে প্রতিদিন (রবি থেকে বৃহস্পতিবার) সীমিত পরিসরে শারীরিক দুরত্ব আবশ্যিকভাবে নিশ্চিত করে লেনদেনের জন্য সকল ব্যাংক খোলা রাখা এবং বিকাশ, রকেট, নগদ ও শিওর ক্যাশের পয়েন্টগুলো খোলা রাখার কথা বলা হয়েছে। ভ্যান বা ভ্রাম্যমাণ দোকানে মাছ ,সবজি ও কাঁচাবাজারের পাশাপাশি মুরগি এবং অন্যান্য জরুরী খাদ্যসামগ্রী বিক্রির ব্যবস্থা করতে বলা হয়েছে।

এদিকে প্রশাসন থেকে বান্দরবানে লকডাউন চলাকালীন মুদি দোকান, ফলমূল এবং মনিহারি দ্রব্য সামগ্রীর দোকান খুলে দেওয়ায় সকাল থেকে সড়কে ভীড় করছে অসংখ্য জনসাধারণ। সামাজিক দুরত্ব না মেনে এবং মাক্স ব্যবহার না করে অনেকেই ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের সামনে উপস্থিত হতে দেখা গেছে। সড়কের পাশে ভ্যানে করে বিক্রি হচ্ছে মাছ ,মুরগী ও সবজি বাজার আর তা কিনতে সাধারণ জনসাধারণ জটলা করছে এলোমেলোভাবে।

বাজার করতে আসা মো:রফিকুল আলম বলেন,বান্দরবানে অনেক দিন পর ব্যবসা প্রতিষ্টান খোলার নির্দেশনা দিয়েছে প্রশাসন তবে নির্দেশনা মানছে না অনেকে। বাজার করতে এসে জড়ো হচ্ছে অনেক জনসাধারণ,এতে আতংকিত হচ্ছি আমরা সবাই । একসাথে জড়ো হয়ে বাজার করতে গিয়ে করোনা ছড়ার আশংকা রয়েছে সব চাইতে বেশি।

এদিকে বান্দরবানের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো:শামীম হোসেন বলেন, গত ২৫জুন থেকে বান্দরবানে লকডাউন চলছে কেননা বান্দরবানে করোনা রোগী বৃদ্ধি পাচ্ছে। করোনা সংক্রমন প্রতিরোধে বান্দরবান জেলা প্রশাসন গণবিজ্ঞপ্তিতে জারি করে বান্দরবান সদর ও লামা পৌরসভাকে রেড জোনের আওতায় এনে এই দুটি পৌরসভায় লকডাউন করে দেয়।

বান্দরবানের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো:শামীম হোসেন আরো বলেন,তবে দীর্ঘদিন লকডাউন থাকার পর জনগণের সুবিধার্থে আমরা গণবিজ্ঞপ্তি সংশোধন করেছি এবং নতুন গণবিজ্ঞপ্তিতে আমরা এখন থেকে বান্দরবানে প্রতিদিন সকাল ৭টা হতে বিকাল ৪টা পর্যন্ত মুদি দোকান, ফলমূল এবং মনিহারি দ্রব্য সামগ্রীর দোকান খোলা রাখার নির্দেশনা দিয়েছি। অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক আরো বলেন, চলমান লকডাউন আগামী ১৫জুলাই পর্যন্ত চলবে,কিন্তু করোনা পরিস্থিতির উন্নতি না হলে তা আবারো ও বাড়ানো হতে পারে।

তিনি আরো বলেন, জনসাধারণের অনেকেই সামাজিক দুরত্ব না মেনে বাজার করতে আসে এবং অনেকেই মাক্স ব্যবহার করে না ,তাই তাদের আমরা সচেতন করার কার্যক্রম চালাচ্ছি এবং যারা একদম নিয়ম না মেনে চলাচল করছে এবং গুরুত্বর অপরাধ করছে তাদের বিরুদ্ধে প্রশাসনের পক্ষ থেকে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করা হচ্ছে।

প্রসঙ্গত,বান্দরবানে করোনা রোগী বৃদ্ধি পাওয়ায় গত ২৫জুন থেকে বান্দরবান সদর ও লামা পৌরসভাকে ২১ দিনের জন্য লকডাউন ঘোঘনা করে বান্দরবান জেলা প্রশাসন।

বান্দরবান |  আরও খবর
এইমাত্র পাওয়া
আর্কাইভ
সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত, ২০১৭-২০১৮।    Design & developed by: Ribeng IT Solutions