শুক্রবার | ০৩ এপ্রিল, ২০২০

বর্ণাঢ্য আয়োজনে রাঙামাটিতে দৈনিক সাঙ্গুর প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন

প্রকাশঃ ১৫ ফেব্রুয়ারী, ২০২০ ০৭:১০:০৫ | আপডেটঃ ০১ এপ্রিল, ২০২০ ১১:৫২:১৭  |  ২০৬
সিএইচটি টুডে ডট কম, রাঙামাটি। রাঙামাটি পৌরসভা মেয়র মোঃ আকবর হোসেন চৌধুরী বলেছেন, পাহাড়ের প্রত্যন্ত এলাকা থেকে উঠে আসা দৈনিক পত্রিকা সাঙ্গু এখন বৃহত্তর চট্টগ্রামের জনপ্রিয় পত্রিকায় পরিনত হয়েছে এটা আমাদের জন্য অত্যন্ত গর্বের। আমি মনে দৈনিক সাঙ্গু তার নিজস্ব স্বকিয়তার মাধ্যমে যেভাবে এগিয়ে যাচ্ছে তা ধরে রাখতে পারলে ভবিষ্যতে দৈনিক সাঙ্গু সফলতার দ্বারপ্রান্তে পৌছুবে। তিনি সাংবাদিকতায় পাহাড়ের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি ধরে রাখার উপর গুরুত্বরোপ করেন।

চট্টগ্রাম বিভাগের বহুল প্রচারিত দৈনিক পত্রিকা সাঙ্গুর ১৮ বর্ষে পদার্পণ উপলক্ষে রাঙামাটি পৌরসভা কনফারেন্স হলে অনুষ্ঠিত আলোচনা ও গুণীজন সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে পৌরসভা মেয়র মোঃ আকবর হোসেন চৌধুরী এসব কথা বলেন।

রাঙামাটির প্রবীণ সাংবাদিক ও দৈনিক গিরিদর্পণ পত্রিকার সম্পাদক একেএম মকছুদ আহমদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এবং দৈনিক সাঙ্গু রাঙামাটি জেলার স্টাফ রিপোর্টার সাংবাদিক মনসুর আহম্মেদের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত আলোচনাসভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন দৈনিক সাঙ্গু ও দৈনিক বায়ান্ন পত্রিকার সম্পাদক ও প্রকাশক কবির হোসেন সিদ্দিকী, রাঙামাটি প্রেস ক্লাবের সভাপতি মোঃ সাখাওয়াৎ হোসেন রুবেল, দৈনিক বায়ান্ন পত্রিকার চট্টগ্রাম ব্যুরো প্রধান হুমায়ুন কবীর, দৈনিক সাঙ্গুর ব্যবস্থাপনা সম্পাদক মোঃ মামুনুর রশিদ, দৈনিক সাঙ্গুর নির্বাহী সম্পাদক মেজবাহ উদ্দিন, দৈনিক রাঙামাটির ব্যবস্থাপনা সম্পাদক বেগম সুফিয়া কামাল ঝিমি, রাঙামাটি রিপোর্টাস ইউনিটির সাধারন সম্পাদক মোঃ ফজলুর রহমান রাজন প্রমূখ।

পৌর মেয়র বলেন, জনপ্রতিনিধি ও মিডিয়ার সাথে সবসময় সু-সম্পর্ক থাকাটা অত্যন্ত জরুরী কারন সাংবাদিকদের সাথে সঠিকভাবে সমন্বয় করতে পারলে তাদের মাধ্যমে সমাজের অনেক কিছু যেমন দ্রুত জানা যায় তেমনি সমাজের যেসব সমস্যা রয়েছে সেসব সমস্যা সমাধানে ভূমিকা রাখা যায়। তিনি সাঙ্গুর প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে সম্পাদকসহ এর সংশ্লিষ্ট সকলের সফলতা কামনা করেন।

বিশেষ অতিথির বক্তবে দৈনিক সাঙ্গু ও দৈনিক বায়ান্ন পত্রিকার সম্পাদক ও প্রকাশক কবির হোসেন সিদ্দিকী বলেন অনেক চড়াই উৎরাই পেরিয়ে দৈনিক সাঙ্গু এখন বৃহত্তর চট্টগ্রামের জনপ্রিয় পত্রিকায় পরিনত হয়েছে।

তিনি বলেন, এই ১৮ বছরের পথচলায় আমাকে অনেক নির্যাতন নিপীড়নের শিকার হতে হয়েছে। শত ষড়যন্ত্র-বাধা বিপত্তির মাঝে ও আমাদের কলম থেমে থাকেনি। জনগনের কল্যাণে দেশের কল্যাণে সাঙ্গু যেভাবে কাজ করে যাচ্ছে সেভাবেই কাজ করে যাবে।

ভবিষ্যতে দৈনিক সাঙ্গুর কর্মকান্ডে সকলকে পাশে থাকার আহবান জানিয়ে কবির হোসেন সিদ্দিকী আরো বলেন, আমি পাহাড়ের সন্তান, পার্বত্য বান্দরবান জেলা থেকে বের হওয়া দৈনিক সাঙ্গু পত্রিকা এখন চট্টগ্রাম বিভাগ থেকে বের হয়, এ সফলতা আমার একার নয় আমাদের সকলের।
তিনি বলেন দৈনিক সাঙ্গুতে প্রকাশিত রিপোর্ট এখন হাজার হাজার মানুষ  শেয়ার করে। এর মাধ্যমে বুঝা যায় দৈনিক সাঙ্গুর প্রতি এখন মানুষের আস্থা অনেক বেড়ে গেছে, এটা ধরে রাখতে হবে। সাঙ্গুর পথচলা আরো শক্তিশালী করতে তিনি সকলের সহায়তা কামনা করেন।



সভাপতির বক্তব্যে দৈনিক গিরিদর্পণের সম্পাদক একেএম মকছুদ আহমদ বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামে যারা সাংবাদিকতা করে তাদের অনেক রকম পরিস্থিতির মূখোমুখি হতে হয়। তিনি বলেন, চট্টগ্রাম বিভাগ থেকে প্রকাশিত দৈনিক পত্রিকা সাঙ্গুর ১৮ বছর পূর্ণ হলো। এটা অনেক বড় একটি সাফল্য কারন একটি দৈনিক পত্রিকা চালানো সহজ বিষয় নয়। সাঙ্গু ১৮ বছর ধরে সফলতার সাথে যেভাবে এগিয়ে যাচ্ছে ভবিষ্যতে আরো এগিয়ে যাবে। পার্বত্য চট্টগ্রামের সমস্যা তুলে ধরার জন্য তিনি সাঙ্গু পত্রিকার কর্তৃপক্ষকে অনুরোধ জানান।

আলোচনাসভা শেষে বিভিন্ন ক্ষেত্রে অবদানের জন্য দৈনিক সাঙ্গুর পক্ষ থেকে পাহাড়ের অনলাইন সিএইচটি টুডে ডট কম এর সম্পাদক ও রাঙামাটি রিপোর্টার্স ইউনিটির সাধারন সম্পাদক ফজলুর রহমান রাজন ও রাঙামাটির তরুন সমাজসেবক মোঃ আবু তৈয়বকে সম্মাননা স্মারক প্রদান করা হয়।

এছাড়া রাঙামাটি পৌরসভা মেয়র মোঃ আকবর হোসেন চৌধুরী এবং  দৈনিক সাঙ্গু ও দৈনিক বায়ান্ন পত্রিকার সম্পাদক ও প্রকাশক কবির হোসেন সিদ্দিকীকে সম্মননা স্মারক প্রদান করা হয়।

আলোচনাসভা শেষে একটি আনন্দ র‌্যালী বের করা হয়। অনুষ্ঠানে দৈনিক সাঙ্গু পত্রিকায় কর্মরত চট্টগ্রাম বিভাগের বিভিন্ন জেলা উপজেলার প্রতিনিধিরা ও উপস্থিত ছিলেন।

 
 
এইমাত্র পাওয়া
আর্কাইভ
সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত, ২০১৭-২০১৮।    Design & developed by: Ribeng IT Solutions