মঙ্গলবার | ১০ ডিসেম্বর, ২০১৯
খাগড়াছড়িতে উগ্রবাদ প্রতিরোধে সেমিনার

উগ্রবাদ প্রতিরোধে নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের ভুমিকা রাখতে হবে

প্রকাশঃ ৩০ অক্টোবর, ২০১৯ ০৪:২৬:০১ | আপডেটঃ ১০ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০৩:৩১:৫৯  |  ২৬৭
সিএইচটি টুডে ডট কম, খাগড়াছড়ি। খাগড়াছড়িতে ‘উগ্রবাদ প্রতিরোধে জনপ্রতিনিধিদের ভুমিকা শীর্ষক দিনব্যাপী সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার  সকাল ১০টায় খাগড়াছড়ি টাউন হলে এ সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়।

বাংলাদেশ পুলিশের কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের উদ্যোগে  বিভিন্ন শ্রেনী পেশার মানুষের সাথে ধারাবাহিকভাবে আয়োজিত সংলাপের অংশ হিসেবে আজ জনপ্রতিনিধিদের নিয়ে এ সেমিনারের আয়োজন করা হয়।

খাগড়াছড়ি পুলিশ সুপার মোহাঃ আহমার উজ্জামানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সেমিনারে প্রধান অতিথি ছিলেন খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কংজরী চৌধুরী। বিশেষ অতিথি ছিলেন খাগড়াছড়ি পৌরসভার মেয়র মো: রফিকুল আলম,খাগড়াছড়ি সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো: শানে আলম,দীঘিনালা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো: কাশেম,মাটিরাঙ্গা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান  মো: রফিকুল ইসলাম, কাউন্টার টেরোরিজমের এডিসি জাহিদুল হক তালুকদার।  ডিএমপির কাউন্টার টেররিজম বিভাগের (এডিসি) পুলিশ সুপার আব্দুল মান্নান উগ্রবাদ প্রতিরোধে জন প্রতিনিধিদের ভুমিকা নিয়ে মুল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন।

সেমিনারে প্রধান অতিথি বলেন,  নাগরিক সচেতনতা পরিবর্তণের শক্তি। সামাজিক, রাজনৈতিক, নাগরিক জীবন কিংবা দেশ বা জাতির পরিবর্তনসহ সকল পরিবর্তনের মূল শক্তি সচেতনতা। এই সচেতনতা একমাত্র সম্ভব আমাদের জনপ্রতিনিগণ যদি নাগরিকদের সচেতন করে তোলেন,  নজরদারীতে রাখেন এবং আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সাথে কাঁধে কাঁধ রেখে কাজ করেন, তাহলে নিয়ন্ত্রিত পরিস্থিতি টেকসই হবে।   

ডিএমপির কাউন্টার টেররিজম বিভাগের (এডিসি) পুলিশ সুপার আব্দুল মান্নান  তার উপস্থাপনায়  বলেন, বর্তমানে বাংলাদেশে আইন শৃঙ্খলা বাহিনী যেভাবে সহিংস উগ্রবাদ নিয়ন্ত্রণে কঠোর নজরদারী ও তৎপর রয়েছে তাতে উগ্রবাদ নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। এই নিয়ন্ত্রণকে  কার্যকর ও সার্বিকভাবে সফলতা নিশ্চিত করার জন্য প্রয়োজন নাগরিক সম্পৃক্ততা, জনসচেতনতা ও নাগরিক অংশগ্রহণের কোনো বিকল্প নেই। এটি সরকার বা আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর পক্ষে সরাসরি নির্মূল করা সম্ভব নয়,তাই এ আয়োজন বলে যোগ করেন তিনি।

সেমিনারে বক্তারা, সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ দমনে সামাজিক সচেতনতার সৃষ্টির উপর গুরুত্বারোপ করে বলেন, এ ক্ষেত্রে নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের ভুমিকা রাখতে  হবে। সেমিনার থেকে উগ্রবাদ দমনে করনীয় নিয়ে সবাই মতামত ও সুপারিশ প্রদান করেন।

সেমিনারে খাগড়াছড়ির ৯টি উপজেলার চেয়ারম্যান,ভাইস চেয়ারম্যান,বিভিন্ন ইউনিয়নের চেয়াম্যান,ইউপি সদস্য ও পুলিশের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তাগন উপস্থিত ছিলেন।
খাগড়াছড়ি |  আরও খবর
এইমাত্র পাওয়া
আর্কাইভ
সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত, ২০১৭-২০১৮।    Design & developed by: Ribeng IT Solutions