মঙ্গলবার | ২২ অক্টোবর, ২০১৯
রামু কেন্দ্রীয় সীমা মহাবিহারের

অধ্যক্ষ উপ সংঘরাজ পন্ডিত ভদন্ত সত্যপ্রিয় মহাথের মহাপ্রয়াণ উপলক্ষে নানা আয়োজন

প্রকাশঃ ০৯ অক্টোবর, ২০১৯ ১০:৪০:৫১ | আপডেটঃ ২১ অক্টোবর, ২০১৯ ০৯:১৩:২২  |  ১৯৭
কক্সবাজার রামু থেকে ফিরে, কৌশিক দাশ। কক্সবাজার জেলার রামু কেন্দ্রীয় সীমা মহাবিহারের অধ্যক্ষ উপসংঘরাজ পন্ডিত ভদন্ত সত্যপ্রিয় মহাথের মহাপ্রয়াণ উপলক্ষে মহাসংঘদান, পেটিকাবদ্ধকরণ ও স্মৃতিচারণ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বুধবার সকালে রামু কেন্দ্রীয় সীমা মহাবিহারে বিহারের অধ্যক্ষ ও গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক একুশে পদকে ভুষিত উপসংঘরাজ পন্ডিত ভদন্ত সত্যপ্রিয় মহাথের মহাপ্রয়াণ উপলক্ষে মহাসংঘদান, পেটিকাবদ্ধকরণ ও স্মৃতিচারণ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

এসময় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি। উপসংঘরাজ ড. জ্ঞানশ্রী মহাথের এর সভাপতিত্বে  এতে আরো উপস্থিত ছিলেন সমাজ কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী শরীফ আহমেদ, কক্সবাজার ৩ (সদর-রামু) সংসদ সদস্য সাইমুম সরওয়ার কমল এমপি, মহেশখালী-কুতুবদিয়া সংসদ সদস্য আশেক উল্লাহ রফিক এমপি, কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেন, রামু উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সোহেল সরওয়ার কাজল,বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্য লক্ষীপদ দাশ,ক্যাসাপ্রু মার্মা ও মোজাম্মেল হক বাহাদুরসহ বিভিন্ন বৌদ্ধ ধর্মালম্বী নারী ও  পুরুষেরা।

এসময় প্রধান অতিথির বক্তব্যে রাখতে গিয়ে পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি বলেন, আমাদের ভবিষ্যৎ বংশধরকে একটি সুন্দর পরিবেশ সৃষ্টি করার জন্য যত আপদ বিপদ যাই আসুকনা কেন আমরা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে সংঘবদ্ধ থেকে আমাদের এগিয়ে যেতে হবে।


আমরা সংঘবদ্ধ থাকব এবং সংঘবদ্ধ থেকেই জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা’র হাতকে শক্তিশালী করে সকল ধর্মের সকল মানুষের বসবাসের জন্য বঙ্গবন্ধুর যে স্বপ্ন অসাম্প্রদায়িক রাষ্ট্র বাংলাদেশ সেটা করার জন্য আমরা সবাই মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সাথে কাজ করবো।

এসময় পার্বত্যমন্ত্রী বীর বাহাদুর এমপি আরো বলেন, রামু কেন্দ্রীয় সীমা মহাবিহারের অধ্যক্ষ উপসংঘরাজ পন্ডিত ভদন্ত সত্যপ্রিয় মহাথের এমন একজন ব্যক্তি যিনি খুবই ক্ষিপ্ত হয়ে রাগ করার মতন কোনো কিছুই আমরা কখনো দেখিনি, তার বড় প্রমান সেই ২০১২ সালের দু:সময় ২৯শে সেপ্টেম্বর।

যখন কিছু অমানুষ যারা মানুষ নয় তারা মানবতার বিরুদ্ধে কাজ করে এই এলাকার বৌদ্ধ বিহারগুলো ভেঙ্গে দিয়েছে ও পুড়িয়ে দিয়েছে কিন্তু প্রয়াত অধ্যক্ষ উপসংঘরাজ পন্ডিত ভদন্ত সত্যপ্রিয় মহাথের এর মধ্যে প্রতিশোধমুলক কোন কিছু আমরা দেখিনি। তখন শুধু তিনি বলেছিলেন যারা ভুল করেছে করুক,আমরা সবাই সম্মিলিতভাবে পৃথিবীটাকে সুন্দরভাবে গড়ে তুলি। সংর্ঘষ  শুধু সংর্ঘষকেই ডেকে আনে কিন্তু শান্তি দিয়ে আমাদের সকল সম্প্রদায়কে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে।

বান্দরবান |  আরও খবর
এইমাত্র পাওয়া
আর্কাইভ
সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত, ২০১৭-২০১৮।    Design & developed by: Ribeng IT Solutions