মঙ্গলবার | ২৩ অক্টোবর, ২০১৮

রাঙামাটিতে বিশেষ অভিযানে আটক ২

প্রকাশঃ ১১ মে, ২০১৮ ০৭:৫০:০১ | আপডেটঃ ২৩ অক্টোবর, ২০১৮ ১০:৩৬:১৬  |  ৩৮৪০
সিএইচটি টুডে ডট কম, রাঙামাটি। নানিয়াচরে দুই ঘটনায় ৬জনকে হত্যার ঘটনার পর রাঙামাটি সদরসহ পুলিশ বিভিন্ন এলাকায় অভিযান পরিচালনা করছে।


শুক্রবার দুপুরের দিকে রাঙামাটি শহর এলাকা থেকে এদের গ্রেফতার রাঙামাটি কোতোয়ালি থানা পুলিশ। গ্রেফতার ২ জন হলেন- জেলার বাঘাইছড়ি উপজেলার নলবুনিয়া গ্রামের বাসিন্দা মৃত অনিল চন্দ্র চাকমার ছেলে তন্টু মনি চাকমা (৪০) এবং রাঙামাটি সদর উপজেলার কুতুকছড়ি ইউনিয়নের বাদলছড়ি গ্রামের বাসিন্দা গুনবিন্দু চাকমার ছেলে কিরণ চাকমা (৫৫)। কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সত্যজিৎ বড়–য়া এসব তথ্য নিশ্চিত করেন।

ওসি জানান, পৃথক অভিযানে তন্টু মনি চাকমাকে শহরের কল্যাণপুর এবং কিরণ চাকমাকে কুতুকছড়ি বাজার থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে। নানিয়ারচরের ৬ খুনের মামলায় গ্রেফতারকৃত দু’জনকেই আদালতে চালান দেয়া হয়েছে। অভিযান অব্যাহত রয়েছে। বিভিন্ন এলাকায় পুলিশি তল্লাশি চলছে। এদিকে নানিয়ারচরের ৬ খুনের মামলা ঘিরে রাঙামাটি শহর এলাকার মানিকছড়ি, ভেদভেদী, পৌরসভা চত্ত্বরসহ বিভিন্ন জায়গায় যানবাহন থামিয়ে পুলিশি তল্লাশি চলছে। এতে ভোগান্তির মধ্যে পড়তে হচ্ছে বলে জানান, সাধারণ যাত্রীরা।

উল্লেখ্য, ৩ মে সন্ত্রাসীদের ব্রাশফায়ারে নানিয়ারচর উপজেলা চেয়ারম্যান শক্তিমান চাকমা নিহত হন। এ ঘটনায় বাদী হয়ে নানিয়ারচর থানায় একটি মামলা করেছেন, জেএসএস সংস্কারবাদী গ্রুপের উপজেলা কমিটির সহ-সভাপতি রূপম চাকমা। এ মামলায় ইউপিডিএফ সভাপতি প্রসিত বিকাশ খীসা ও সাধারণ সম্পাদক রবি শংকর চাকমাসহ ৪৬ জনকে আসামি করা হয়েছে।

পরদিন ৪ মে শক্তিমান চাকমার দাহক্রিয়া অনুষ্ঠানে যোগ দেয়ার জন্য যাওয়ার পথে সন্ত্রাসীদের ব্রাশফায়ারে নিহত হয়েছেন, ইউপিডিএফ গণতান্ত্রিক দলের প্রধান তপন জ্যোতি চাকমা ওরফে বর্মাসহ ৫ জন। এ ঘটনায় বাদী হয়ে আরেকটি পৃথক মামলা করেছেন, ইউপিডিএফ (গণতান্ত্রিক) গ্রুপের সদস্য অর্চিন চাকমা। এ মামলায় প্রসিত ও রবি শংকরসহ ৭২ জনকে আসামি করা হয়েছে। আসামিদের ধরতে পুলিশি অভিযান জোরদার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে, পুলিশ।

রাঙামাটি |  আরও খবর
এইমাত্র পাওয়া
আর্কাইভ
সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত, ২০১৭-২০১৮।    Design & developed by: Ribeng IT Solutions