সোমবার | ২২ জুলাই, ২০১৯

রাঙামাটি জেলা মাসিক আইন শৃঙ্খলা সভা অনুষ্ঠিত

প্রকাশঃ ১২ মে, ২০১৯ ০৫:১৭:১১ | আপডেটঃ ২২ জুলাই, ২০১৯ ০৩:৫৮:৫৫  |  ২৩০
সিএইচটি টুডে ডট কম, রাঙামাটি। আজ রোববার সকাল ১১টায় রাঙামাটি জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে জেলার মাসিক আইন শৃঙ্খলা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।  জেলা প্রশাসক একেএম মামুনুর রশীদের সভাপতিত্বে এতে পুলিশ সুপার আলমগীর, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট নজরুল ইসলাম, রাঙামাটি পৌরসভার মেয়র আকবর হোসেনসহ আইন শৃঙ্খলা কমিটির সদস্যরা বক্তব্য রাখেন।

সভায় পবিত্র মাহে রমজানের পবিত্রতা রক্ষার  স্বার্থে ব্যবসায়ীদের অতি মাত্রায় মুনাফা না করার আহবান জেলা প্রশাসন। এসময় সভা অনেকে অভিযোগ করেন, জেলা প্রশাসনের বাজার মনিটারিং টীম বাজার পরিদর্শন করে আসার পর পরই এক শ্রেনীর অসাধু ব্যবসায়ী নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসের দাম বাড়িয়ে দেয়, তারা জেলা প্রশাসনকে বাজারদর কঠোরভাবে নিয়ন্ত্রন করার অনুরোধ জানান।

আইন শৃঙ্খলা  সভায় ফেব্রুয়ারী মাসের তুলনায় এপ্রিল মাসে অপরাধমুলক কর্মকান্ড কম সংগঠিত হওয়ায় সন্তোষ প্রকাশ করা হয়।

এছাড়া সভায় ৬টি উপজেলার সাথে লঞ্চ পথে নৌ যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হওয়ায়  কাপ্তাই লেকের বিভিন্ন স্থানে দ্রুত ড্রেজিং কাজ করার জন্য নৌ মন্ত্রনালয়ের কাছে পুনরায়  চিঠি পাঠাতে আহবান জানানো হয়। পুরোদমে বর্ষা শুরু হওয়ার আগে পাহাড় ধ্বসে ক্ষতিগ্রস্ত সড়ক সমুহকে দ্রুত ঠিক করতে এলজিইডি এবং সড়ক বিভাগের প্রতি তাগিদ দেয়া হয়।    

জেলার সার্বিক পরিস্থিতি যেমন,স্বাস্থ্য ,শিক্ষা ,কাঠ পাচার ,মাদক,কাপ্তাই লেক,যত্রতত্র গ্যাস সেলেন্ডার বিক্রি,সরকারি ভূমি বেদখল,বিদ্যুৎ,ভারতীয় কাঠ এনে বাংলাদেশে জোত পারমিট তৈরী করা,এলজিইডি ও সড়ক জনপথ নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ আলোচনাসহ মতামত ব্যক্ত করা হয়েছে। এসব আলোচনার মধ্যে এলজিইডির কাজের মান নিয়ে তোপের মূখে পড়েছেন এলজিইডির নির্বাহী প্রকৌশলী। সভায় এলজিইডির অনিয়ম দূর্নীতির ব্যাপারে কথা তুলেত রাঙামাটি চেম্বার অব কর্মাসের বেলায়েত হোসেন ও আঞ্চলিক পরিষদের সদস্য হাজি মো.কামাল হোসেন।নানিয়ারচর থেকে যে সড়ক লংগদু কালাপাকুজ্যা হয়ে দীঘিনালাসংযোগ সড়কে ব্যাপক অনিয়ম দৃর্নীতি হয়েছে। তবে এসব অনিয়ম দূর্নীতির ব্যাপারে সরাসরি স্বীকার করেন এলজিইডি প্রকৌশলী। উক্ত সভায় জেলা প্রশাসক সকলের উপস্থিতিতে পূনরায় এলজিইডি প্রকৌশলীকে  পরিদর্শন করে জরুরী ভিত্তিতে রিপোর্ট প্রদানের নির্দেশ দেন। এছাড়াও জেলাসদর ওউপজেলা সদর গুলোতে এলজিইডির নিজস্ব জায়গা বেদখল হয়ে যাচ্ছে।সে ব্যাপারে গৃহীত ব্যবস্থা নিতে এলজিইডিকে নির্দেশ দেন।

পুলিশ সুপার মো. আলমগীর কবীর বলেন, রাঙামাটিতে মাদক নিয়ন্ত্রণে পুলিশ সথেষ্ট সচেতন রয়েছে । গত মাসে মাদক নিয়ে বহু মামলা হয়েছে। রাঙামাটির আইন-শৃঙ্খলা বর্তমানে অনেক ভাল আছে। সম্প্রতি সারা দেশের মসজিদ,গীর্জা,কেয়াং,মন্দির,স্কুল কলেজসহ বড় বড় প্রতিষ্ঠানে আইএস ও জঙ্গি হামলার টার্গেট করা হয়েছে। আর সেটা হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে ১৮ মে ২০১৯। সে লক্ষে জেলা পুলিশ সর্তকতামূলক ওই দিন রাঙামাটি শহরের সর্বত্র চেক পোষ্ট বসাইয়ে অভিযান পরিচালনা করা হবে। এব্যাপারে জেলার সকল জনগোষ্ঠী পুলিশকে সার্বিক সহযোগিতা করার জন্য আহবান জানান।

মাসিক আইন-শৃঙ্খলা সভার সভাপতি জেলা প্রশাসক একেএম মামুনুর রশিদ বলেন, গত মাসের কার্য বিবরণী শুনে তার উপর পর্যালোচনা করা হয়েছে। এখানে অনেক কিছু উঠে এসেছে।যার যারঅবস্থান থেকে নিজ নিজ দপ্তরের কাজকর্ম সঠিক ভাবে তদারকির মাধ্যমে সুষ্ঠু ও সুন্দর ভাবে সমাধান করে প্রত্যেকটি এলাকার উন্নয়ন করবেন এই প্রত্যাশা করছি।

রাঙামাটি |  আরও খবর
এইমাত্র পাওয়া
আর্কাইভ
সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত, ২০১৭-২০১৮।    Design & developed by: Ribeng IT Solutions