শুক্রবার | ২২ ফেব্রুয়ারী, ২০১৯

চন্দ্রঘোনায় জোড়া খুন মামলায় সন্দেহভাজন ৮জন আটক

প্রকাশঃ ০৮ ফেব্রুয়ারী, ২০১৯ ০৬:০৫:৫৬ | আপডেটঃ ২২ ফেব্রুয়ারী, ২০১৯ ১২:২৫:৫৯  |  ১২৭৬
সিএইচটি টুডে ডট কম, রাঙামাটি। রাঙামাটির চন্দ্রঘোণা থানাধীন রাইখালী ইউনিয়নের কারিগরপাড়ায় জোড়া খুনের ঘটনায় দায়েরকৃত মামলায় গত দুদিনে সন্দেহভাজন ৮জনকে আটক করেছে যৌথবাহিনী। এরা রাইখালী ইউনিয়নসহ কাপ্তাইয়ের বাসিন্দা এবং আঞ্চলিক দল জনসংহতি সমিতির সদস্য বলে জানা গেছে। আটককৃতদের  শুক্রবার বিকালে রাঙামাটি জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট জাহেদ আহম্মদের আদালতে আনা হলে আদালত তাদের জামিন নামঞ্জুর করে জেল হাজতে প্রেরন করেন।

গত ৪ ফেব্রুয়ারী কাপ্তাইয়ের রাইখালীর কারিগরপাড়া এলাকায় বিকালে চা দোকানে বসে আড্ডা দেয়ার সময় জেএসএস এমএন লারমা গ্রুপের কর্মী অংসুনু মারমা ও ছাত্রলীগ কর্মী জাহিদ হোসেনকে দুবৃর্ত্তরা গুলি করে হত্যা করে। ঘটনার পরেরদিন রাতে অংসনু মারমার শুশুর আপ্রু মারমা ২১জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাতনামা আরো ১০/১৫জনকে আসামী করে হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলা দায়েরের পর গতকাল এবং আজকে বিভিন্ন স্থান থেকে মোট ৮জনকে আটক করে যৌথবাহিনী।

নিহত দুজনকে  আওয়ামীলীগ তাদের দলীয় কর্মী বলে দাবি করেছে।

আটককৃতরা হলো খ্যাই সাথোয়াই মারমা (৫২), তপন তালুকদার (৩৩),  থুইসিং মং মারমা (৪০), মং ছাপ্রু মারমা (৫৩), তেজন্দ্র তংচঙ্গ্যা (৩৬), উ থোয়াইনু মারমা (২৫), চাছিং মং মারমা (২৪) এবং থাওয়াই  মং মারমা (২৫)।

চন্দ্রঘোণার থানার ওসি (তদন্ত) শফিউল আজম জানিয়েছেন, আসামীদের আদালত জেল হাজতে প্রেরন করেছে। মামলার মুল আসামীদের ধরতে যৌথবাহিনী তৎপরতা চালাচ্ছে।

রাঙামাটি |  আরও খবর
এইমাত্র পাওয়া
আর্কাইভ
সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত, ২০১৭-২০১৮।    Design & developed by: Ribeng IT Solutions