বুধবার | ১২ ডিসেম্বর, ২০১৮
রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের মাসিক সভা অনুষ্ঠিত

কর্মকর্তাদের নির্বাচনে নিরপেক্ষভাবে দায়িত্ব পালনের আহবান বৃষ কেতু চাকমার

প্রকাশঃ ১৮ নভেম্বর, ২০১৮ ০৫:৫৩:৪০ | আপডেটঃ ১২ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০২:২৬:১৮  |  ১৭২
সিএইচটি টুডে ডট কম, রাঙামাটি। কারও প্রতি পক্ষপাতিত্ব না করে নিরপেক্ষভাবে একাদশ সংসদ নির্বাচনের দায়িত্ব সঠিকভাবে পালনের জন্য পরিষদের হস্তান্তরিত বিভাগের কর্মকর্তাদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বৃষ কেতু চাকমা।

তিনি আরো বলেন, আগামী একাদশ সংসদ নির্বাচনে সরকারি কর্মকর্তা হিসেবে আপনাদের বিভিন্ন ভোট কেন্দ্রে দায়িত্ব পালন করতে হবে। সে দায়িত্ব সঠিক ও সুচারুভাবে পালন করবেন। একথা মনে রাখতে হবে নির্বাচনকালীন সময়ে আপনি একজন সরকারি কর্মকর্তা, কোন দলের কর্মকর্তা নয়। সুষ্ঠ, অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের জন্য নিজের অর্পিত দায়িত্ব সকলকে সঠিকভাবে পালন  করতে হবে।

রোববার (১৮ নভেম্বর) সকালে অনুষ্ঠিত রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ এর মাসিক সভায় সভাপতির বক্তব্যে  পরিষদ চেয়ারম্যান এসব কথা বলেন।   

রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের মুখ্য নির্বাহী কর্মকর্তা ছাদেক আহমদ এর পরিচালনায় রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত সভায় জেলা পরিষদের সদস্য অংসুই প্রু চৌধুরী, থোয়াই চিং মং, সাধন মনি চাকমা, সবির কুমার চাকমা, মনোয়ারা আক্তার জাহান, সান্তনা চাকমা, স্মৃতি বিকাশ ত্রিপুরা, অমিত চাকমা, মোঃ জানে আলম, রেমলিয়ানা পাংখোয়া, জ্ঞানেন্দু বিকাশ চাকমা এবং হস্তান্তরিত বিভাগের কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

সভায় সিভিল সার্জন ডাঃ শহীদ তালুকদার বলেন, রাঙামাটির দুর্গম উপজেলাগুলোতে নৌপথে রোগী আনা নেওয়ার জন্য সরকার ইতিমধ্যে লংগদু ও বিলাইছড়িতে দুটি নৌ এম্বুলেন্স প্রদান করেছে যা শীঘ্রই চালু করা হবে। নদী পথের বাকী উপজেলাগুলোতেও এ ধরনের নৌ এম্বুলেন্স প্রদান করা হবে। তিনি বলেন, বিগত বছরের তুলনায় চলতি বছরে ডেঙ্গু ও ম্যালেরিয়া রোগের প্রকোপ অনেকাংশে কমেছে। অন্যদিকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সগুলিতে ডেলিভারী রোগীদের জন্য আলাদা কক্ষ করা হয়েছে। এছাড়া রাঙামাটি জেনারেল হাসপাতাল ও বিভিন্ন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের অবৈধ দখলদারদের উচ্ছেদের বিষয়ে জেলা প্রশাসন ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাদের অবহিত করা হয়েছে যা এখন প্রক্রিয়াধীন আছে। অন্যদিকে জেনারেল হাসপাতালে সকল স্বাস্থ্যসেবা কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে।

কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগের উপ-পরিচালক পবন কুমার চাকমা জানান, বর্তমানে ৯হাজার ২শত হেক্টর জমিতে আমন মৌসুমের ফসল কর্তন করা হচ্ছে। বোরো মৌসুমের ফসল উৎপাদনে লক্ষ্যে প্রত্যন্ত এলাকার কৃষকদের পরামর্শ প্রদান করা হচ্ছে। বর্তমানে জেলা ও উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ কার্যালয়ে ২০৫ মেঃ টন ইউরিয়া সার মজুদ রয়েছে।    

জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা উত্তম খীসা বলেন, জেলা ও উপজেলার বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মাঝে বিনামূল্যে বিতরণের জন্য নতুন বই চলে এসেছে যা বছরের ১ম দিনেই বিতরণ করা হবে। তিনি বলেন, জেলা পরিষদ কর্তৃক ৭ম শ্রেণী মেধাবৃত্তি পরীক্ষা আগামী বছরের জানুয়ারি মাসের ২য় সপ্তাহের মধ্যে হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এ লক্ষ্যে জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা বিভাগের কর্মকর্তারা কাজ করছেন। অন্যদিকে আগামী ২৮ নভেম্বর হতে উচ্চ বিদ্যালয়গুলোতে বার্ষিক পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

জেলা প্রাণী সম্পদ বিভাগের কর্মকর্তা মনোরঞ্জন ধর বলেন, লক্ষ্যমাত্র অনুযায়ী ২০১৭-১৮ অর্থ বছরের কৃত্রিম প্রজনন, চিকিৎসা সেবা, টিকা প্রদান, প্রশিক্ষণ, উঠান বৈঠক কার্যক্রম চলমান রয়েছে। এছাড়া নিয়মিতভাবে গবাদি পশুকে চিকিৎসা ও প্রোডাকশন কার্যক্রম যথারীতি চলছে।

যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক (অঃদাঃ) মোঃ শহীদুল ইসলাম বলেন, আতœকর্মসংস্থান সৃষ্টির লক্ষ্যে বেকার যুবদের বর্তমানে যুব উন্নয়নে ৬টি ট্রেডে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হচ্ছে। আগামীতে লাইভস্টক ট্রেডে ৩মাসের কোর্স প্রদান করা হবে। আগ্রহী যুবদের যোগাযোগ করার অনুরোধ জানান তিনি।  

হর্টিকালচার সেন্টার বালুখালী, বনরুপা, নানিয়ারচর ও কাপ্তাইয়ের উদ্যানতত্ত্ব¡বিদরা জানান, নার্সারিতে শীতকালীন শাক-সবজি, ফুলের চারা ও টার্গেট অনুযায়ী বিভিন্ন প্রজাতি গাছের চারাকলম উৎপাদন, মজুদ ও বিক্রয় কার্যক্রম চলছে।

হর্টিকালচার সেন্টার আসামবস্তীর উপ-পরিচালক মোঃ আবদুল জাফর বলেন, বিগত ৬বছর যাবৎ বন্ধ থাকা মাশরুম সেন্টারটি পুনরায় চালু হয়েছে। ঢাকা থেকে মাদার স্পন এনে উৎপাদন কার্যক্রম শুরু করা হয়েছে। এতে করে মাশরুম চাষিরা এ সেন্টার থেকে উন্নত মানের স্পন সংগ্রহ করতে পারবে।

সরকারী গণগ্রন্থাগারের সহকারী লাইব্রেরীয়ান সুনীলময় চাকমা জানান, গত ১৩ নভেম্বর সদর উপজেলা ৬টি স্কুল থেকে ৯০জন শিক্ষার্থীকে লাইব্রেরী সম্পর্কিত প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়েছে। এছাড়া আগামী ১৬ ডিসেম্বর মহান বিজয় দিবস উপলক্ষ্যে রচনা প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়েছে।

সভায় হস্তান্তরিত বিভাগের অন্যান্য কর্মকর্তাগণ তাদের বিভাগের স্ব স্ব কার্যক্রম উপস্থাপন করেন।

উন্নয়ন খবর |  আরও খবর
এইমাত্র পাওয়া
আর্কাইভ
সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত, ২০১৭-২০১৮।    Design & developed by: Ribeng IT Solutions