মঙ্গলবার | ২০ নভেম্বর, ২০১৮
খাগড়াছড়িতে পূজামন্ডপ পরিদর্শনে সাবেক এমপি যতীন্দ্র লাল ত্রিপুরা

উন্নয়ন ও শান্তির জন্য সম্প্রীতির বিকল্প নেই

প্রকাশঃ ১৭ অক্টোবর, ২০১৮ ১০:৪৫:০৬ | আপডেটঃ ২০ নভেম্বর, ২০১৮ ০৮:৩৪:৫৫  |  ১৭০
সিএইচটি টুডে ডট কম, খাগড়াছড়ি। উন্নয়ন ও শান্তির জন্য সম্প্রীতির বিকল্প নেই উল্লেখ করে সাবেক সংসদ সদস্য যতীন্দ্র লাল ত্রিপুরা বলেছেন, সম্প্রীতির অপর প্রান্তে রয়েছে শান্তি। আর সে শান্তিপূর্ণ সহাবস্থান বজায় রাখতে বঙ্গবন্ধু কন্যা বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিকল্প নেই।

সনাতন ধর্মাবলমঈদের প্রধান ধর্মীয় অনুষ্ঠান দূর্গাপূজার মহা অষ্টমীর দিন বুধবার খাগড়াছড়ির গুইমারা,লক্ষ্মীছড়ি, মানিকছড়ি ও রামগড়ে পুজা মন্ডপ পরিদর্শনকালে তিনি এসব কথা বলেন। এ সময় তিনি, ধর্মের প্রতি সকলকে শ্রদ্ধাশীল হয়ে একে অপরকে সহযোগিতায় এগিয়ে আসতে অনুরোধ জানান।
যতীন্দ্র লাল ত্রিপুরা বর্তমান সরকারের উন্নয়নের চিত্র তুলে ধরে আবারো নৌকা ভোট চেয়ে বলেন, প্রত্যেক ধর্ম আমাদের শান্তি পথ দেখায়। কিন্তু দুষ্ট চক্র সে শান্তি বিনষ্ট করতে সব সময় তৎপর। সকলকে ষড়যন্ত্রকারীতের প্রতিহত করে শান্তি ও উন্নয়নের ধারাবাহিকতা বজায় রাখার আহবান জানিয়ে সরকার সাধারণ মানুষের ভাগ্যোন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছে বলে মন্তব্য করেন। 

পূজামন্ডপ পরিদর্শন কালে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন,খাগড়াছড়ি জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি অধ্যক্ষ সমীর দত্ত চাকমা,খাগড়াছড়ি পৌর মেয়র রফিকুল আলম,খাগড়াছড়ি জেলা আওয়ামীলীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক হোসেন আহম্মদ চৌধুরী,আ’লীগ নেতা আবুল কাশেম চেয়ারম্যান, জেলা শ্রমিকলীগের আহবায়ক নুরনবী, জেলা যুবলীগ নেতা বোরখান উদ্দিন, জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক জহির উদ্দিন ফিরোজ, সাংগঠনিক সম্পাদক হৃদয় মারমা, পানছড়ি উপজেলা আ’লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবু তাহের, খাগড়াছড়ির ৩নং ওয়ার্ড আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক স্বপন কুমার দেসহ জেলা আওয়ামীলীগ ও অঙ্গ-সংগঠনের নেতাকর্মীরা এতে অংশ নেয়।  

পূজামন্ডপ পরিদর্শনকালে পথে পথে শত শত নেতাকর্মী দলীয় অভিভাবকদের বরণ করে ফুল দিয়ে বরণ ও মোটর সাইকেল বহর নিয়ে শোভাযাত্রা নিয়ে মন্ডপ পরিদর্শনে যুক্ত হয়। এসময় যতীন্দ্র লাল ত্রিপুরা ও খাগড়াছড়ি পৌর মেয়র রফিকুল আলম পুজা মন্ডপে আর্থিক সহায়তা ও প্রনামী প্রদান করেন।

খাগড়াছড়ি |  আরও খবর
এইমাত্র পাওয়া
আর্কাইভ
সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত, ২০১৭-২০১৮।    Design & developed by: Ribeng IT Solutions