শনিবার | ১৭ নভেম্বর, ২০১৮

খাগড়াছড়িতে ৬জনকে হত্যার ঘটনায় ইউপিডিএফের নিন্দা

প্রকাশঃ ১৮ অগাস্ট, ২০১৮ ০৫:৪৩:২৪ | আপডেটঃ ১৭ নভেম্বর, ২০১৮ ০৪:৩৩:৫১  |  ৪০১
সিএইচটি টুডে ডট কম ডেস্ক। ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট(ইউপিডিএফ)-এর খাগড়াছড়ি জেলা ইউনিটের ভারপ্রাপ্ত প্রধান সংগঠক উজ্জ্বল স্মৃতি চাকমা, গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের কেন্দ্রীয় সভাপতি অংগ্য মারমা, বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ (পিসিপি)-এর সভাপতি বিনয়ন চাকমা ও শ্রমজীবীফ্রন্ট (ওয়ার্কার্স ফ্রন্ট)-এর সভাপতি সচিব চাকমা সংবাদ মাধ্যমে প্রদত্ত এক যুক্ত বিবৃতিতে আজ শনিবার, ১৮ আগস্ট ২০১৮ সকালে খাগড়াছড়ি জেলা সদরের স্বনির্ভর বাজারে সেনা মদদপুষ্ট সংস্কারবাদী জেএসএস ও নব্য মুখোশ বাহিনীর সন্ত্রাসী কর্তৃক সশস্ত্র হামলা চালিয়ে পিসিপি-যুব ফোরাম নেতাসহ ৬ জনকে হত্যার ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন।

বিবৃতিতে তারা ঘটনার বর্ণনা দিয়ে বলেন, আজ সকাল ৮টার দিকে সংস্কারবাদী ও মুখোশদের একদল সশস্ত্র সন্ত্রাসী স্বনির্ভর বাজারে এসে এলোপাতাড়ি ব্রাশ ফায়ার করে। এতে পিসিপি’র খাগড়াছড়ি জেলা শাখার সভাপতি তপন চাকমা, গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের খাগড়াছড়ি জেলা সহসভাপতি পলাশ চাকমা,  পিসিপি’র খাগড়াছড়ি জেলা শাখার সহ সাধারণ সম্পাদক এল্টন চাকমা, উত্তর খবংপয্যা গ্রামের বাসিন্দা ও মহালছড়ি উপজেলা স্বাস্থ্য সহকারী জিতায়ন চাকমা (৫৩), একই গ্রামের কান্দারা চাকমার ছেলে রুপম চাকমা ও ধীরাজ চাকমা তিনি(ধীরাজ) একজন টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ার। আজ সকালেই তিনি ঢাকা থেকে খাগড়াছড়ি এসে পৌঁছেছেন। সন্ত্রাসীদের এলোপাতাড়ি ব্রাশ ফায়ারে তিনি নিহত হয়েছেন।

এছাড়া সন্ত্রাসীদের ব্রাশফায়ারে আহত হয়েছেন পিসিপি খাগড়াছড়ি সদর থানা শাখার সভাপতি সোহেল চাকমা, খাগড়াছড়ি সরকারী কলেজের ছাত্র দ্বিতন চাকমা, বেলতলি পাড়ার বাসিন্দা ফরেষ্টার ত্রিপুরা(৩৫), খাগড়াছড়ি সদরের পশ্চিম নারাঙহিয়ে গ্রামের বাসিন্দা ও পদ্ম চাকমার ছেলে চিজিমনি চাকমা(২৫)।

নেতৃবৃন্দ এ ঘটনাকে কাপুরুষোচিত ও ন্যাক্কারজনক উল্লেখ করে বলেন,  প্রশাসনের প্রত্যক্ষ সহযোগিতায় সন্ত্রাসীরা এ হামলা চালিয়েছে।
বিবৃতিতে তারা অভিযোগ করে বলেন, স্বনির্ভরবাজারে পুলিশের একটি পোষ্ট ও এরপাশে বিজিবি সেক্টর সদর দপ্তর থাকলেও হামলার সময় তারা নিরব দর্শকের ভূমিকা পালন করেছে। ফলে সন্ত্রাসীরা বেশ কিছুক্ষণ ধরে সশস্ত্র তা-ব চালিয়ে নির্বিঘেœ পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়েছে।
বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে গণপ্রতিরোধ জোরদার করার আহ্বান জানিয়ে বলেন, প্রশাসনের মদদপুষ্ট সংস্কার ও নব্য মুখোশ সন্ত্রাসীরা পুরোপুরি গণবিরোধী ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়েছে। একমাত্র গণপ্রতিরোধের মাধ্যমেই তাদেরকে পরাস্ত করা সম্ভব।
বিবৃতিতে তারা অবিলম্বে হামলাকারী সংস্কার-নব্য মুখোশ সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার পূর্বক দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি ও সন্ত্রাসীদের  মদদ দান বন্ধের দাবি জানিয়েছেন।
                                                      
                                                                 দ্বিতীয় দফা হামলার অভিযোগ :

সংস্কার-মুখোশদের অব্যাহত অপহরণ, খুন, চাঁদাবাজিসহ সন্ত্রাসী কর্মকা-ের প্রতিবাদে এলাকার বিক্ষুব্ধ জনগণ মিছিল নিয়ে স্বনির্ভরের দিকে আসার সময় পেরাছড়া ব্রিজের সামনে দুপুরের দিকে দ্বিতীয় দফায় সশস্ত্র হামলা চালিয়েছে সন্ত্রাসীরা। এতে নারীসহ ৪জন আহত হয়েছেন। আহতরা হলেন- ভাইবোনছড়ার ৫নং যৌথ খামার এলাকার সন কুমার চাকমা, খাগড়াছড়ি সরকারি কলেজের ১ম বর্ষের ছাত্রী উর্মি চাকমা, গুলকানা গ্রামের বাসিন্দা মিনু চাকমা ও শিবন্দির এলাকার সোনা রঞ্জন চাকমা। সন্ত্রসাীরা বর্তমানে পেরাছড়া ইউনিয়নের নীলকান্ত পাড়ায় সশস্ত্র অবস্থায় অবস্থান করছে বলে প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়।

ইউপিডিএফের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক নিরন চাকমা প্রেরিত এক প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে এসব কথা বলা হয়।

খাগড়াছড়ি |  আরও খবর
এইমাত্র পাওয়া
আর্কাইভ
সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত, ২০১৭-২০১৮।    Design & developed by: Ribeng IT Solutions